পচা খাবার ইস্যুতে জনক্ষোভের মুখে চীনের সবচেয়ে নামীদামী স্কুল

পচা খাবার ইস্যুতে জনক্ষোভের মুখে পড়েছে চীনের সবচেয়ে নামীদামী স্কুল চেংদু ৭ নং এক্সপেরিমেন্টাল হাই স্কুল। সিচুয়ান প্রদেশে অবস্থিত স্কুলটির ক্যান্টিনের রান্নাঘরে পচা মাংস এবং সামুদ্রিক খাবার পাওয়ার পর এই জনক্ষোভের সূত্রপাত হয়।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সোমবার কয়কজন অভিভাবক স্কুলটিতে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশ নিতে আসে। সেই অনুষ্ঠানে এসে কিছু অভিভাবক ওই  স্কুলের রান্নাঘরে তল্লাশি চালান এবং পচা খাবার পান।ক্যান্টিনে পচা খাবার পাওয়ায় স্কুলের সামনে আন্দোলন করছে বিক্ষুব্ধ অভিভাবকরা। জানা যায়, বিক্ষুব্ধ অভিভাবকদের ঠেকানোর জন্য লাঠি পেটা করেছে চীন পুলিশ। পরে চীন পুলিশের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, বিক্ষোভ থেকে তারা ১২ জনকে আটক করেছে।

তবে এটি এখনো পরিষ্কার নয় কেন ওই সব অভিভাবক স্কুলের রান্নাঘরে তল্লাশি চালিয়েছিলেন। তবে ধারণা করা হচ্ছে গত নভেম্বরে স্কুলের বেশ কিছু শিক্ষার্থী পেটের অসুখে ভোগেন। একজন অভিভাবক এই ঘটনাকেই রান্নাঘর তাল্লাশির কারণ হিসেবে  বিবিসিকে ইঙ্গিত দিয়েছেন।

একজন অভিভাবক বিবিসিকে বলেন, খাবারগুলো বাজে গন্ধযুক্ত এবং বিরক্তিকর। 

এদিকে পচা খাবার পাওয়ার ঘটনায় চেংদু ৭ নং এক্সপেরিমেন্টাল হাই স্কুল তাদের শিক্ষার্থীদের অভিবাবকদের কাছে ইতিমধ্যে ক্ষমা চেয়েছে।

প্রসঙ্গত, খাদ্য নিরাপত্তা চীনে খুবই সাধারণ একটি বিষয়। খাদ্য নিরাপত্তায় ঘাটতির কারণে হওয়া আন্দলোন থামানোর জন্য চীনের কর্তৃপক্ষকে প্রায়ই হিমশিম খেতে হয়।

মানবকণ্ঠ/এআর

Leave a Reply

Your email address will not be published.