নেপালে আহতদের চিকিৎসায় মনোযোগী সরকার: কাদের

নেপালের কাঠমান্ডুতে উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় যারা আহত হয়েছে তাদের চিকিৎসায় সরকার বেশি মনোযোগী বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, জীবনের ক্ষতি কোন দিন পূরণ হবে না। সরকার এই ব্যপারে কতটুকু আন্তরিক তার প্রমাণ প্রধানমন্ত্রী তার সফর সংক্ষিপ্ত করে বিকেলে ঢাকা নামছেন।

মঙ্গলবার সকালে মিরপুর-১২ নম্বর সেকশনের ইলিয়াস মোল্লা বস্তিতে ক্ষতিগ্রস্তদের দেখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এখানে কে কি দিল তারদের পরিবারতো টাকার জন্য বসে নেই, অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। সেই ক্ষতি পূরণের বিষয়টা এখানে ইউএস বাংলা আছে, সরকার যদি সেরকম কিছু দেয় সেটা বৈধভাবে আলাপ আলোচনা করে তারপর। আপাদত যারা মারা গেছে তাদের দাফন-কাফন করতে হবে। দাফন-কাফনটা হচ্ছে বড়। অসুস্থদের চিকিৎসার বিষয়টা এখন সরকার বেশি মনোযোগ দিচ্ছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বস্তিতে আগুন লেগে যে ক্ষতি হয়েছে সেটা অত্যন্ত কষ্টদায়ক। আমি ত্রাণমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি, সরকারের পক্ষ থেকে আপনাদের জন্য ১০০ টন চাল ও নগত দশ লাখ টাকা বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে।

খালেদা জিয়ার জামিনের সঙ্গে সরকারের কোনো ধরণের সমঝোতা হয়েছে কি না জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা আদালতের ভারডিক্টকে (রায়) বিশ্বাস করি। বিএনপি খুশি কি হতাশ? কোর্ট খালেদা জিয়াকে দণ্ড দিয়েছে, সেই দণ্ডেও সরকারের কোন হস্তক্ষেপ নেই, ছিল না। এর সঙ্গে সমঝোতার কোনো বিষয় নেই। আমি এটাও স্পষ্ট করে বলতে চাই, সোমবার আদালত খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছে, এটাতেও সরকারের কোনো প্রভাব বা হস্তক্ষেপ নেই।সেটা স্বাভাবিক নিয়মে যেভাবে চলছে, আজকে দেশে স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা এবং আদালতের প্রতি জনগণের যে শ্রদ্ধা সেটা চলছে।

কাদের বলেন, আদালত খালেদা জিয়াকে দণ্ড দিয়েছে, আদালতই তাকে জামিন দিয়েছে। এখানে বিএনপির হতাশার আর আনন্দের যে কারণ, উঠা-নামা করে এটা সত্যিই অবাক করার মত।

বিএনপি তলে তলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি তলে তলে অনেক আগে থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এখনও নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে, আমরা তো তৃণমূলের খবর জানি। তারা নির্বাচনী কাজ ঠিকঠাক চালিয়ে যাচ্ছে, এতে তাদের কোনো সমস্যা হচ্ছে না।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ