নিহত আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ

রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় বাস চাপায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আবরার নিহত হওয়ার ঘটনায় তার পরিবারকে ৭ দিনের মধ্যে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সুপ্রভাত পরিবহনের মালিককে এ টাকা দিতে বলা হয়েছে।

বুধবার বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট এই আদেশ দেন।

একইসঙ্গে নিহত এ শিক্ষার্থীর পরিবারকে কেন ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছেন আদালত। আগামি চার সপ্তাহের মধ্যে এই বিআরটিএ সহ সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এছাড়া দুর্ঘটনার বিষয়টি তদন্ত করে বিআরটিএ, পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ, বুয়েটের এক্সিডেন্ট রিসার্চ সেন্টারকে ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত।

এর আগে বুধবার সকালে আবরারের নিহত হওয়ার ঘটনা নিয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন হাইকোর্টের এই বেঞ্চের নজরে আনেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

এরপর এ আইনজীবীকে আদালত এ বিষয়ে রিট আবেদন নিয়ে আসতে বলেন। সে ধারাবাহিকতায় আবরারের নিহত হওয়ার ঘটনায় ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট আবেদন করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। সে রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রুলসহ আদেশ দিলেন।

এদিকে মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে প্রগতি সরণিতে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার গেটের সামনে বাসচাপায় নিহত হন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী। এরপরই রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানায় শিক্ষার্থীা। মঙ্গলবার দিনভর বসুন্ধরা গেটের সামনে অবস্থান করে বিকেলের দিকে কর্মসূচি স্থগিত করা হয়। এরপর বুধবার সকাল থেকে তারা দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করছেন। পুরান ঢাকা, ধানমন্ডি, উত্তরাতেও শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন বলে  জানা গেছে। 

মানবকণ্ঠ/এআর