নির্বাচন বানচাল করার জন্য এই নাশকতা: কাদের

নির্বাচন বানচাল করার জন্য এই নাশকতা: কাদের

বিএনপি’র কার্যালয় নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে নির্বাচন বানচাল করার জন্য বিনা উস্কানিতে এই নাশকতা করা হয়েছে।

বুধবার বিকেলে আওয়ামী লীগের সভাপতি রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপির নেতা মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে বিনা উস্কানিতে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য এই হামলা করা হয়েছে। পুলিশ পাল্টা আক্রমণ না করায় তাদেরকে ধন্যবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

তিনি বলেন, আজকে বাংলাদেশের জনগণ শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়ন অর্জনে খুশি, আমরা নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে সম্পূর্ণ আশাবাদী। আমরা আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশের জনগণ মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিকে ভোট দেবে, সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করবে। এ নির্বাচন সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে।

তিনি আরো বলেন, আজ তারা পুলিশের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। পুলিশের দুটি গাড়ি পুড়িয়ে দেয়। একটি গাড়ি প্রায় পুড়িয়ে ফেলে। তাদের হামলায় পুলিশের ১৩ সদস্য মারাত্মকভাবে আহত হয়ে হাসপাতালে। এ উসকানি কারা দিল, তাহলে কি নির্বাচন পেছানোর জন্য? তারা পরিকল্পিতভাবে নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে নিজেদের বীরত্ব জাহির করেছে এবং নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র শুরু করে দিয়েছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা কি আজ জানান দিলেন, ২০০১ সালে যা করেছেন, ১৪ সালে যা করেছেন, আবারো তারা সেটাই করবেন। আজকের ঘটনায় তাদের উদ্দেশ্য মনে হচ্ছে, তারা নির্বাচন বানচাল করতে চায়। তারা জনপ্রিয় জননন্দিত শেখ হাসিনা সরকারকে ক্ষমতা থেকে হটাতে চায়। এটাই তাদের উদ্দেশ্য।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, দিপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এসএস