নির্বাচনে হস্তক্ষেপকারীদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প

মানবকণ্ঠ ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে হস্তক্ষেপকারী যে কোনো প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করে নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে এসব প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হবে। বুধবারের মধ্যে এই নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করবেন ট্রাম্প। সংশ্লিষ্ট দুটি সূত্রের বরাতে রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে। ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ছিল বলে দাবি করে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। অভিযোগ ওঠে, ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ক্ষতি করার এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভাবমূর্তি বড় করার চেষ্টা করে রাশিয়া। এই প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে হিলারি ক্লিনটনের ই-মেইল হ্যাক করে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। এরপর বিষয়টি নিয়ে এফবিআইর সাবেক পরিচালক রবার্ট মুলারের নেতৃত্বে তদন্ত শুরু হয়। এমনকি গত জানুয়ারিতে বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও তৎকালীন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) পরিচালক মাইক পম্পেও মধ্যবর্তী মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়া হস্তক্ষেপ করতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন। এই নির্বাচনে এমন বিদেশি হস্তক্ষেপের ঘটনা ঠেকাতেই এমন উদ্যোগ নিতে যাচ্ছেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্ত আগামী ৬ নভেম্বরের কংগ্রেস নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে গোয়েন্দা সংস্থা, সামরিক বাহিনী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহায়তা করবে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের বিষয়টি ট্রাম্প অস্বীকার করলেও তারা নির্বাচনে বিদেশি হামলা ঠেকাতে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। তবে ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলেও হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।