নির্বাচনী বছরে শুরু হয়েছে অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি: উদ্ধারে বিশেষ কার্যক্রম গ্রহণের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বেপরোয়াভাবে আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহার হচ্ছে বলে সংসদে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির সদস্য নুরুল ইসলাম মিলন। তিনি বলেছেন, নির্বাচনী বছরে অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধে সরকারের গরজ অনুভব করা যাচ্ছে না। তাই নির্বাচনের পূর্বেই অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে বিশেষ কার্যক্রম গ্রহণের আহ্বান জানান তিনি। গতকাল মঙ্গলবার রাতে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এই আহ্বান জানান কুমিল্লা-৮ আসনের জাপার এই এমপি।
নুরুল ইসলাম মিলন বলেন, ‘নির্বাচনে যাতে অবৈধ অস্ত্রের দৌরাত্ম্য অনুভূত না হয় সেদিকে সরকারের কড়া দৃষ্টি রাখা দরকার। প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিশ্চয়ই সজাগ আছেন মাঠ পর্যায়ে আরো কার্যকরভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ ঠেকাতে প্রধানমন্ত্রী যে ব্যবস্থা নিয়েছেন তা প্রশংসনীয়। এখন অবৈধ অস্ত্রের ব্যাপারে খুব কড়া নজরদারি প্রয়োজন। পত্রিকার কথা উল্লেখ করে এই এমপি বলেন, ‘সারাদেশে ৪ লাখ অবৈধ অস্ত্র রয়েছে। তাছাড়া বর্তমানে অবৈধ অস্ত্র ব্যবসায়ীর সংখ্যাও নাকি অনেক বেড়ে গেছে। প্রায় ৫০০ উপরে অবৈধ অস্ত্র ব্যবসায়ী রয়েছে। তাদের নাকি এখন খুব সাংঘাতিক কদর। তাদের এখন অনেকেই খোঁজ করে। নির্বাচনের পূর্ব মুহূর্তে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে বিশেষ কার্যক্রম গ্রহণ করার অনুরোধ করছি।’