নিম পাতার উপকারিতা

নিম পাতার উপকারিতা

ত্বক থেকে চুল, হজমের সমস্যা থেকে সর্দি-কাশি- সারা বছরই কম-বেশি এসব অসুখে ভোগে মানুষ। তবে এসব অসুখ সামলাতে ওষুধের পাশাপাশি আপনাকে কিন্তু সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে নানাভাবে। এই সব রোগকে জব্দ করতে পারে নিম। নিমের যেমন জীবাণুনাশক ক্ষমতা আছে, তেমনই এর অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট শরীরের টক্সিনকে দূর করে তাকে সুস্থ-সবল রাখে। নিম পাতা বেটে লাগালে যেমন নানা অসুখ প্রতিহত হয়, তেমনই নিম পাতা খেলেও অনেক অসুখ দূরে থাকে।

দেখে নিন নিম পাতা কীভাবে আপনার দৈনন্দিন রুটিনে কাজে আসবে। খাদ্য তালিকায় রাখুন নিম আর নিমের সাহায্যে কাটিয়ে উঠুন নানা অসুখ।

চুল: নিমের জীবাণুনাশক গুণ খুশকি দূর করে সহজেই। শুকনো স্কাল্পের সমস্যায় খুব উপকারী নিম। আবহাওয়া বদলের সঙ্গে আমাদের স্কাল্পের পিএইচের ভারসাম্য হেরফের হয়। ফলে চুল কখনো তৈলাক্ত হয়, কখনো শুষ্ক। সঙ্গে বাড়ে খুশকির সমস্যা। নিম এই সমস্যাকে সহজেই কাটিয়ে তোলে।

রক্ত: নিমে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ক্ষমতা প্রচুর। শরীরের টক্সিন দূর করে রক্তকে শুদ্ধ রাখতে বিশেষ উপকারী নিম। ফলে নিম পাতা ভাজা বা তেতো ডাল রান্নায় নিম পাতা দিয়ে সহজেই খাদ্য তালিকায় যোগ করুন নিম। প্রতিদিন সকালে নিমের রস খেতে পারলেও ভালো ফল পাবেন।

পেট: পেটের সমস্যা দূর করতে নিমের জুড়ি নেই। নিম আমাদের হজমে সাহায্য করে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। ফলে প্রতিদিন পাতে কিছুটা নিম পাতা ফেলতে পারলে তা আখেরে আপনার লাভ।

দাঁত: নিম অ্যান্টিবায়োটিক। অনেকেই টুথপেস্ট ও মাউথওয়াশের উপাদানে নিম খোঁজেন। নামি ব্র্যান্ডের টুথপেস্টেও নিমকে প্রধান উপাদান হিসেবে বাজারজাত করে বেশিরভাগ সংস্থা। দাঁত ও মাড়ির ব্যথা কমিয়ে দিতে পারে নিমের ডালে থাকা অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান।

ত্বক: ত্বকের যে কোনো সমস্যা সমাধানে নিম খুব উপকারী। ত্বক পরিষ্কার রাখতে ও ত্বকের তৈলাক্ত ভাব নিয়ন্ত্রণে নিমের অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান সাহায্য করে। জীবাণুনাশক হওয়ার কারণে ব্রণ, কালো দাগ এসব দূর করতে কার্যকর ভূমিকা রাখে নিম। আনন্দবাজার।

মানবকণ্ঠ/এসএস