খাশোগি হত্যার স্বীকারোক্তিতে যা বললো সৌদি আরব

নিখোঁজ হওয়ার ১৮ দিন পর অবশেষে সৌদি নিখোঁজ সাংবাদিকের হত্যার ঘটনাটি স্বীকার করে নিয়েছে সৌদি আরব। শুক্রবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয় সৌদি দূতাবাসের ভেতর মারামারি করতে গিয়ে নিহত হয়েছেন সাংবাদিক জামাল খাশোগি। এদিকে সৌদি রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএ খাশোগি হত্যার বিষয়ে সৌদি আরবের সরকারি কৌঁসুলির আলাদা একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে। খবর আল জাজিরা’র।

সৌদি আরবের সরকারি কৌঁসুলির দেয়া ওই বিবৃতিতে বলা হয়, জামাল বিন আহমাদ খাশোগি নিখোঁজের ঘটনার প্রাথমিক তদন্তে জানা যায় যে সৌদি দূতাবাসে প্রবেশের পর তিনি ওই দূতাবাসের এক কর্মকর্তার সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন। সেই আলোচনার এক পর্যায়ে তারা ঝগড়া এবং ধ্বস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েন। ওই সময় জামাল খাশোগির মৃত্যু হয়। সৌদি সরকারি কৌঁসুলির পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হচ্ছে যে জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের তদন্তে ১৮ জনের সম্পৃক্ততা খুঁজে পাওয়া গিয়েছে যারা সবাই সৌদি নাগরিক। তাদের কাছ থেকে খাশোগি হত্যার তথ্য উদঘাটনে এবং তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য তদন্ত কাজ এখনো চলছে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরব ও দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কঠোর সমালোচক জামাল খাশোগি গত ২ অক্টোবর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিতে তুরস্কের ইস্তানবুল শহরের সৌদি দূতাবাসে প্রবেশের পর আর বের হননি। সৌদি আরব অবশ্য বলছে, খাশোগি দূতাবাস ভবন থেকে বের হয়ে গেছেন। তবে শেষ পর্যন্ত হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে নিল তারা।

মানবকণ্ঠ/এআর