দ্রুত ওজন কমানোর মসলা

দ্রুত ওজন কমানোর মসলা

কেবল খাবারের স্বাদই বাড়ায় না বরং কিছু মসলা ওজন দ্রুত কমাতে ও নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করে। পুষ্টিবিজ্ঞানের তথ্যানুসারে খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে বিভিন্ন মসলা ও ভেষজ উপাদান নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে এমন কিছু মসলার কথা জানানো হলো যা ওজন কমানো আরো দ্রুত করবে। এদের মধ্যে দারুচিনি, লাল মরিচ, জিরা, আদা, রোজমেরি, এলাচ ও গোলমরিচ উল্লেখযোগ্য। জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

দারুচিনি ক্ষুধা কমাতে সাহায্য করে। রক্তের শর্করার মাত্রা কমায় এবং দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা রাখে। লাল মরিচের ঝাল শরীরের তাপমাত্রা বাড়ায়। ফলে বিপাকও বাড়ে। বিপাক যত বেশি ক্যালরি তত বেশি খরচ হবে। খাবারে মরিচ বা ঝাল যোগ করুন। এটা প্রতিবেলার খাবারে ১শ’ ক্যালরি পোড়াতে সাহায্য করবে। বাদাম, সুপ, ডিম ইত্যাদি খাবারের উপরে হালকা লাল-মরিচ ছিটিয়ে খেতে পারেন। খাবারে এক টেবিল-চামচ জিরা যোগ করুন। এটা তিনগুণ বেশি চর্বি কমাতে সাহায্য করে।

সম্প্রতি স্থূলকায় নারীদের উপর পরিচালিত গবেষণা থেকে এমনটাই জানা গেছে। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে আদা। মিষ্টিজাতীয় খাবার খাওয়ার পর শরীরের গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে পারে এই মসলা। হলুদ, লাল-মরিচও তাই। এগুলোতেও আছে চর্বি পোড়ানোর উপাদান, ‘থার্মোজেনিক’। রোজমেরি বিপাক বৃদ্ধি করে। এটা হজম বাড়াতে এবং ওজন কমাতে সাহায্য করে। হালকা গরম পানিতে রোজমেরি ভিজিয়ে পান করতে পারেন। তবে সেটা যেন খালি পেটে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ভিন্ন ঘ্রাণযুক্ত এলাচের তাপ উৎপাদন ক্ষমতা ওজন কমাতে সাহায্য করে।

পেটে গ্যাস উৎপন্ন হওয়া কমিয়ে ফোলাভাব ও অস্বস্তি দূর করে। দ্রুত ওজন কমাতে খাবারে এক চিমটি বা দুইটা এলাচ যোগ করুন। তাছাড়া কালো গোল মরিচ পিপারিন সমৃদ্ধ যা খাবারে ভিন্ন স্বাদ এনে দেয়। এই উপাদান চর্বির কোষ গঠনে বাধা দেয়। ফলে ওজন কমাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি পরবর্তি সময়েও ওজন বাড়তে দেয় না। ভালো ফলাফলের জন্য লাল মরিচ ও গোল মরিচ একসঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.