থাইল্যান্ড নির্বাচনে এগিয়ে সেনা সমর্থিত দল

২০১৪ সালের সামরিক অভ্যুত্থানের পর প্রথমবারের মতো থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনের ফলাফলে এগিয়ে রয়েছে সেনা সমর্থিত দল ‘পালং প্রচারাথ পার্টি। ৯১ শতাংশ ভোট গণনা শেষে প্রায় ৭৩ লাখ ভোট পেয়ে নির্বাচনে অপ্রত্যাশিতভাবে এগিয়ে রয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী প্রায়ুথ চান ও। পিউ থাই পার্টি পেয়েছে ৬৬ লাখ ভোট। একেবারেই নতুন দল ফরওয়ার্ড পার্টি পেয়েছে, ৪৮ লাখ ভোট।

আজকের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ ফল ঘোষণা করা হবে জানিয়েছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। এতে আবারো সরকার গঠন করতে যাচ্ছেন সেনাবাহিনীর সাবেক জেনারেল ওচা। ওদিকে পরাজয়ের পর দলীয় প্রধানের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন বিরোধী ডেমোক্রেট পার্টির নেতা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী অভিজিত ভেজাজিবা। 

থাকসিন সিনাওয়াত্রা ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ২০০৬ সালে এক সামরিক অভ্যুত্থানে তিনি ক্ষমতাচ্যুত হন। এরপর প্রায় ১০ বছর ধরে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে স্বেচ্ছা নির্বাসনে আছেন। তার বোন ইংলাক সিনাওয়াত্রা পরে থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হন। ২০১৪ সালে ইংলাককেও ক্ষমতাচ্যুত করে সামরিক বাহিনী। জান্তা সরকারের প্রধানমন্ত্রী হন প্রায়ুথ চ্যান ওচা। সামরিক জান্তা সরকার থাকসিনের দল পিউ চার্ট পার্টিকে ভেঙে দেওয়ার হুমকি প্রদানের পর থাই রাকসা চার্ট পার্টি নামে ছোট পরিসরে আরেকটি দল গড়ে তোলে তারা। থাকসিন নির্বাসনে থাকা অবস্থাতেই দলটিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

মানবকণ্ঠ/এআর