তুরস্কে অধ্যয়ন সমাপনী বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

তুরস্কে অধ্যয়ন সমাপনী বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনাচলতি শিক্ষাবর্ষে তুরস্কের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইসডি কোর্সে উত্তীর্ণ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সমাপনী সংবর্ধনা প্রদান করেছে দেশটির বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃপক্ষ। শনিবার রাজধানী আঙ্কারায় অবস্থিত দূতাবাস সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তুরস্কে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি শিক্ষার্থী, পেশাজীবিদের উপস্থিতিতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম. আল্লামা সিদ্দীকী।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ২০১৮ সালে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইসডি কোর্সে উত্তীর্ণ ২৮ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। স্মারক প্রদানের পূর্বে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক সূচকের সব মানদণ্ডে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক আত্মপ্রকাশ এবং ওষুধ শিল্পে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির উপর নির্মিত দু’টি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন বক্তব্যে বিদেশস্থ দূতাবাস কর্তৃক এভাবে সংবর্ধিত হতে পেরে নিজেদেরকে সম্মানিত বোধ করার অনুভুতি ব্যক্ত করেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়া, এধরনে সম্মান প্রাপ্তি মেধা বিকাশের ক্ষেত্রে সকল ছাত্র-ছাত্রীদের উৎদীপ্ত করবে মর্মে শিক্ষার্থীরা মত প্রকাশ করেন তারা।

তুরস্কে অধ্যয়ন সমাপনী বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত এম. আল্লামা সিদ্দীকী, দেশের চলমান উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত হয়ে অবদান রাখার জন্য সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি এ প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের ভাগ্যবান উল্লেখ করে বলেন, নতুন এবং অগ্রসরমান বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে তাদের বিরাট ভূমিকা পালনের অবকাশ রয়েছে যা জাতির প্রত্যাশা পূরণে সহায়ক হবে।

মানবকণ্ঠ/এসএস