তিতাসের অভিযানে বাণিজ্যিক ও আবাসিক গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহার ও কারচুপি রোধকল্পে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের বিশেষ পরিদর্শন/সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ কার্যক্রমের পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অবৈধ লাইন অপসারণ/সংযোগ বিচ্ছিন্নের অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।
এপ্রিল মাসজুড়ে পরিচালিত এ অভিযানে ১৫টি শিল্প, ১৩টি বাণিজ্যিক, ২টি ক্যাপটিভ, ১টি সিএনজি স্টেশন, ২৮২.৮১ কিমি অবৈধ গ্যাস পাইপলাইন, ৭৩ হাজার ৩০টি অবৈধ আবাসিক চুলা এবং গ্যাস বিল বকেয়ার কারণে ৯৭৯টি বৈধ চুলা, ২টি শিল্প, ১৫টি বাণিজ্যিক, ১টি সিএনজি ও ১টি ক্যাপটিভের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।
গ্যাস ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহার করায় ১৬ এপ্রিল গাজীপুরের বোর্ড বাজারে মেসার্স জয় কেমিক্যাল, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মেসার্স অপূর্ব ডাইং অ্যান্ড প্রিন্টিং মিলস্, ২৫ এপ্রিল সোনারগাঁও এলাকায় মেসার্স এইচ আর স্পিনিং, অবৈধ বুস্টার ব্যবহার করায় ১৮ এপ্রিল ধামরাই এলাকায় মেসার্স প্রতীক সিরামিক্সের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেসার্স জয় কেমিক্যালকে ১ লাখ টাকা, মেসার্স প্রতীক সিরামিক্স ও মেসার্স অপূর্ব ডাইং অ্যান্ড প্রিন্টিং মিলস্কে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। তাছাড়া, অবৈধ গ্যাস ব্যবহার করায় ১৬ এপ্রিল রূপগঞ্জ এলাকায় মেসার্স আলমস ক্যাসেল রেস্টুরেন্ট ও রিলাক্স মশার কয়েল, ২৫ এপ্রিল সোনারগাঁও এলাকায় মেসার্স কিংস কনফেকশনারি গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক মেসার্স আলমস ক্যাসেল রেস্টুরেন্টের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা ও মেসার্স কিংস কনফেকশনারীর কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকা নগদ জরিমানা আদায় করা হয়।
বিভাগীয় ভিজিল্যান্স টিম কর্তৃক অবৈধ স্থাপনায় গ্যাস ব্যবহার করায় গাজীপুর এলাকায় ১১ এপ্রিল মেসার্স বাংলার রাধুনী রেস্তোরাঁ, ২২ এপ্রিল মেসার্স টার্গেট ফ্যাশান লি. ও ২৪ এপ্রিল মেসার্স ফার সিরামিক্স লি., ২৬ এপ্রিল গাজীপুরের শ্রীপুরে মেসার্স এ্যাসরোটেক্স লি. ও জিরানী বাজারে মেসার্স ঢাকা সাংহাই সিরামিক্স লি. (শিল্প ও ক্যাপটিভ), ১২ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় মেসার্স মারুফ এন্টারপ্রাইজের ৩টি অবৈধ সংযোগ ও ফতুল্লা এলাকায় মেসার্স রনি টেক্সটাইলস্ লি., ৮ এপ্রিল রূপগঞ্জ এলাকায় নিরিবিলি হোটেল এবং সুভাষ ও জাহাঙ্গীর মিষ্টির দোকান, ৩ এপ্রিল ঢাকার মালিটোলায় ফজলুল করিম কমিনিউটি সেন্টার, ৪ এপ্রিল ঢাকার শ্যামপুরে মেসার্স কে আলী মেটাল (ক্যাপটিভ পাওয়ার), ১৯ এপ্রিল ঢাকার লক্ষীবাজারে নিউ প্রিন্স অব ওয়েজ বেকারি ও মিরপুরের পল্লবী এলাকায় মেসার্স সাদিয়া ফুড প্রোডাক্টসের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। হাউস লাইনে বুস্টার ব্যবহার করায় টঙ্গী এলাকায় ১২ এপ্রিল মেসার্স নাইস থ্রেড ও মেসার্স স্টিল ভোল নিট লি., ১৮ এপ্রিল মেসার্স নিপ্পন গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিজ লি.-এ অনুমোদনবিহীন স্থাপনার গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। তাছাড়া অনুমোদনবিহীন স্থাপনায় গ্যাস ব্যবহার করায় ৩০ এপ্রিল ধামরাই এলাকায় মেসার্স ধামরাই অটো চিড়া ও মুড়ির মিলস্ এবং অনুমোদন অতিরিক্ত লোড ব্যবহার করায় ১১ এপ্রিল ঢাকা উত্তরখানে মেসার্স টপ জিন্স লি.-এর গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। অবৈধ কার্যকলাপের কারণে ২২ এপ্রিল গাজীপুরের মেসার্স এ. আর. সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশনের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।
বিভাগীয় টিম কর্তৃক বকেয়া বিলের কারণে ৮ এপ্রিল ফতুল্লা এলাকায় মেসার্স নাহার কর্পোরেশন, ১০ এপ্রিল মীর হাজারীবাগে মেসার্স আমির ইঞ্জিনিয়ারিং ও ঢাকার পাটুয়াটুলি এলাকায় ডায়মন ব্যাটারি কোং, উত্তর যাত্রাবাড়ী এলাকায় ১১ এপ্রিল মেসার্স সাকুরা স্টিল ও ১২ এপ্রিল মেসার্স মুমিন ট্রেডার্স, ১৬ এপ্রিল চন্দ্রা এলাকায় মেসার্স সেতারা নিটওয়্যার লি., মিরপুরে মেসার্স গোলাপ সুইটমিট ও মতিঝিলে পূর্ণিমা রেস্টুরেন্ট, ১৮ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় মেসার্স আলী রেস্তোরাঁ ও ঢাকার ভাটারায় ভাই ভাই হোটেল, নরসিংদী এলাকায় ১৯ এপ্রিল মেসার্স সোনিয়া টি স্টল ও ২৪ এপ্রিল মেসার্স লোকনাথ ভাণ্ডার এবং ঢাকার তোপখানা রোডে অলিম্পিয়া প্যালেস, ২২ এপ্রিল হেমায়েতপুরে মেসার্স এস এম এস প্রোডাক্টস (শিল্প ও ক্যাপটিভ), ২৭ এপ্রিল ঢাকার নতুন বাজারে গুলশান ফুড প্রোডাক্টস, ২৮ এপ্রিল গুলশানে রোল এক্সপ্রেস ক্যাফের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।
তাছাড়া, সাভারের হেমায়েতপুরে ২৬ এপ্রিল মেসার্স ঢাকা সিএনজির গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অভিযানকালে ৮, ৯, ১০, ১৫, ১৬, ১৯, ২২, ২৩ ও ২৬ এপ্রিল গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় ২” ব্যাসের ১ লাখ ২২ হাজার ৩০৬ ফুট, ৪ এপ্রিল সাভার এলাকায় বিভিন্ন ব্যাসের ২২ হাজার ৯৬৭ ফুট, ৯, ১১, ১৯ ও ২২ এপ্রিল পলাশনগর, পল্লবী, গৈদারটেক, রূপনগর, বাউনিয়া বাধ এলাকায় ৩/৪”, ও ২” ব্যাসের ২১,৩২৭ ফুট এবং কোম্পানির বিভাগীয় টিম কর্তৃক ৫, ৭, ৮, ৯, ১০, ১১, ১২, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮, ১৯, ২১, ২৩ ও ৩০ এপ্রিল সাভারের বিভিন্ন এলাকায় ২” ব্যাসের ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৭২০ ফুট, ৪ ও ২৪ এপ্রিল চন্দ্রার বিভিন্ন এলাকায় ১” ও ২” ব্যাসের ৮ হাজার ৫৭৩ ফুট, ৪, ১২, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮, ১৯, ২২, ২৩ ও ২৪ এপ্রিল সোনারগাঁও, রূপগঞ্জ, গজারিয়া, আড়াইহাজার ও বন্দর থানায় ১”, ২” ও ৩” ব্যাসের ১,৫৪,২০২ ফুট, ১১ ও ৩০ এপ্রিল খিলগাঁও থানার মেরাদিয়া ও মানিকদী কবরস্থান সংলগ্ন এলাকায় ২” ব্যাসের ৩ হাজার ৯৩৮ ফুট, ১৭, ১৯, ২২, ২৩ ও ২৪ এপ্রিল বাড্ডা, কড়াইল বস্তি ও উত্তর মানিকদী ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় ২” ব্যাসের ১ লাখ ৯৩ হাজার ৫৫০ ফুট, ১৮ ও ২৫ এপ্রিল ডেমরা এলাকায় ৩/৪”, ১” ও ২” ব্যাসের ৫,১০০ ফুট, ১৭ এপ্রিল নরসিংদীর দিঘিরপাড় ও শেখের চরে ৩/৪” ও ১” ব্যাসের ৫শ’ ফুট, ১৯ এপ্রিল টাঙ্গাইলের সন্তোষ এলাকায় ৩/৪” ও ১” ব্যাসের ১ হাজার ৭৪০ ফুটসহ সর্বমোট ৯ লাখ ২৭ হাজার ৯২৩ ফুট অর্থাৎ ২৮২.৮১ কিমি অবৈধভাবে স্থাপিত গ্যাস পাইপলাইনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন/অপসারণ করা হয়। এর ফলে প্রায় ৭৩ হাজার ৩০টি চুলার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।