তানু ধর্ষণ ও হত্যায় তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
শরীয়তপুর গোলাম হায়দার খান মহিলা কলেজের সম্মান শ্রেণির ছাত্রী ও শরীয়তপুর পৌরসভার দক্ষিণ বালুচড়া গ্রামের দুবাই প্রবাসী ইছাহাক মোল্যার স্ত্রী সামসুন্নাহার তানুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ করে হত্যার অভিযোগে করা মামলায় ৩ জনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন শরীয়তপুরের নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনাল।
গতকাল বুধবার বেলা ১২টায় শরীয়তপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবদুস সালাম খান ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণের পর জনাকীর্ণ আদালতে এ আদেশ দেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেনÑ শরীয়তপুর সদর উপজেরার চররোসুন্দ গ্রামের সাইফুল ইসলাম (২২), দুলাল (২২) ও একই গ্রামের রেজাউল করিম সুজন (২৩। এদের মধ্যে রেজাউল করিম পলাতক রয়েছে।
মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৭ আগস্ট বিকেল ৪টার দিকে শরীয়তপুর পৌরসভার দক্ষিণ বালুচড়া গ্রামের ইছাহাক মোল্যার বাড়ি থেকে তার স্ত্রী সামসুন্নাহার তানু প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। স্বামী ইছাহাক মোল্যা দুবাই প্রবাসে থাকায় তার বড় ভাই আবুল কাসেম মোল্যা ওই দিনই পালং মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।