ঢাকায় এশিয়া ওপেন অ্যাকসেস সম্মেলন শুরু

ঢাকায় এশিয়া ওপেন অ্যাকসেস সম্মেলন শুরু

ঢাকায় শুরু হয়েছে এশিয়া ওপেন অ্যাকসেস সম্মেলন। ‘এশিয়া ওপেন অ্যাকসেস ঢাকা ২০১৯’ নামের দুইদিনের এ সম্মেলনের আয়োজক বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি)। কনফেডারেশন অব ওপেন অ্যাকসেস রিপোজিটোরিসের (সিওএআর) সহযোগিতায় বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দুইদিনের সম্মেলনে বিশ্বের ১৪টি দেশের গবেষক, শিক্ষাবিদসহ ওপেন অ্যাকসেস নিয়ে কাজ করা অনেকেই অংশ নিচ্ছেন।

বুধবার সকালে ঢাকার বিইআরসি মিলনায়তনে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তিনি বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে বর্তমান সরকার নানা ধরনের উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছে। বিশেষ করে সরকার ইতিমধ্যে ওপেন গভর্নমেন্ট পোর্টাল করেছে এবং বিশ্বের সবচেয়ে বড় ওয়েবসাইটের মালিকও এখন বাংলাদেশ। দেশে ওপেন ডেটা, বিগ ডেটার মতো বিষয়গুলো নিয়েও বিভিন্ন পর্যায়ে কাজ শুরু হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ওয়ায়েস কবির, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কমলারঞ্জন দাস ও বিআরসির পরিচালক মো. আজিজ জিলানী চৌধুরী।

সম্মেলনের সমন্বয়ক ও বিএআরসি প্রধান ডকুমেন্টেশন কর্মকর্তা ড. সুস্মিতা দাস বলেন, এবারের সম্মেলনে থাকছে একাধিক সেমিনার, কর্মশালা, গোলটেবিল বৈঠক। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণা সংস্থার অনেকেই সম্মেলনে নিজেদের প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন।

বাংলাদেশে এ সম্মেলনের আয়োজনে সহযোগিতা করছে সেন্টার ফর ওপেন নলেজ (সিওকে)। এবারের সম্মেলনে ওয়ার্ল্ড এডুকেশন উইক উপলক্ষে রয়েছে বিশেষ আয়োজন। এতে ওপেন এডুকেশন বিষয়ে বাংলাদেশের নানা বিষয় নিয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিওকে’র সভাপতি অধ্যাপক মোস্তফা আজাদ কামাল। তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে যাচ্ছি উন্মুক্ত নানা মাধ্যমে। বর্তমানে বিশ্বব্যাপী ওপেন এডুকেশন সপ্তাহ চলছে বিশ্বব্যাপী তাই আমরা এ সম্মেলনেও বিশেষ আয়োজন রেখেছি।

সম্মেলনের প্রথম দিনে ওপেন অ্যাকসেস এবং ওপেন সায়েন্স, ওপেন এডুকেশন : ফোকাস অন বাংলাদেশ, ইনস্টিটিউশনাল রোলস ইন সাপোটিং ওপেন সায়েন্স এবং এশিয়ান কান্ট্রি আপডেট নিয়ে বিশেষ সেমিনার ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক ভাবে প্রতি বছরই সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। এবার এ আয়োজনটি হচ্ছে বাংলাদেশে। এশিয়ার মধ্যে ওপেন অ্যাকসেস, ওপেন সায়েন্স, ওপেন এডুকেশনের সামগ্রিক অবস্থার বিস্তারিত নানা বিষয়গুলো সম্মেলনে উপস্থাপন করা হয়। সম্মেলনে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে, গবেষণা কেন্দ্রসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শতাধিক অংশগ্রহণকারী যোগ দিয়েছেন। সম্মেলন শেষ হবে আগামীকাল ৭ মার্চ।

মানবকণ্ঠ/এসএস