ড. কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার সকালে মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বের হওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানানোর শেষে গেট দিয়ে বের হওয়ার সময় অনেক মানুষের জটলা দেখতে পাই। আমি আগে নিরাপদে বের হয়ে গেলেও পেছনে ড কামাল হোসেন এবং আ স ম আব্দুর রবের গাড়ি আক্রমণের শিকার হয়।

দারুস সালাম থানার ওসি সেলিমুজ্জামান বলেন, “হৈ হৈ শব্দ শুনে আমরা ঘটনাস্থলে এসে দেখি সেখানে কেউ নেই। তবে ডিএমপি মিরপুর বিভাগের দারুসসালাম জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবি স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য হাজার হাজার মানুষের আগমন ঘটেছিল। একটু ধাক্কাধাক্কি হলেও হতে পারে। দিন শেষে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে আমাদের সংবাদদাতা জানান, সকাল আনুমানিক পৌনে ১০টার দিকে ৫০/৬০ জন ব্যক্তি ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে জাসদের আ স ম আবদুর রবের গাড়িতে আক্রমণ করেন।এই হামলায় আবদুর রবের গাড়িচালক আহত হয়েছেন।

এদিকে জামায়াতের বিষয়ে প্রশ্ন করায় সাংবাদিকদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ড. কামালের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকেরা তার কাছে জানতে চান, ‘জামায়াতের তো রাজনৈতিক দল হিসেবে নিবন্ধন বাতিল হয়েছে, এখন জামায়াত সম্পর্কে আপনাদের সর্বশেষ অবস্থান কী? এ প্রশ্নে ক্ষিপ্ত হন কামাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘কত টাকা পেয়েছ, এই প্রশ্নগুলো করার জন্য? শহীদ মিনারে এসেছ, শহীদদের কথা চিন্তা করা উচিত। কোন চ্যানেল থেকে এসেছ? চিনে রাখব। চুপ করো, খামোশ!’

মানবকণ্ঠ/এফএইচ