টেকনো নিয়ে এলো এআই ডুয়েল ক্যামেরা ও নচ-ডিসপ্লে’র নতুন স্মার্টফোন

ট্রানশান বাংলাদেশ তাদের প্রিমিয়াম ব্র্যান্ড টেকনো’র বহরে যুক্ত করেছে ক্যামন সিরিজের নতুন দুটি স্মার্টফোন মডেল। যাতে ব্যবহার করা হয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ হালের চাহিদার এআই ডুয়েল ক্যামেরা ও নচ-ডিসপ্লে।

এবারো উচ্চমান ও প্রযুক্তি সম্পন্ন ক্যামেরার প্রাধান্য পেয়েছে নতুন এই মডেল দুটিতে। ক্যামন আই টু এবং ক্যামন আই টু এক্স নামের এই মডেল দুটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে যথাক্রমে ১৪,৯৯০ টাকা এবং ১৭,৬৯০ টাকা।

“মডেল দুটি উন্মোচন উপলক্ষে শুক্রবার সম্প্রতি রাজধানী ঢাকার যমুনা ফিউচার পার্কের সেন্ট্রাল কোর্টে এক অনাড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে ট্রানশান বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজওয়ানুল হক সহ-ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও মডেল দুটির ইনফ্লুয়েন্সার হিসেবে ইউটিউব সেলিব্রেটি রাবা খান ও লোকাল বাস খ্যাত প্রিতম হাসান নতুন মডেল দুটি উন্মোচন করেন”।

“এক্সপেক্ট মোর” ব্র্যান্ড দর্শনে ভর করে টেকনো তাদের এই ক্যামন সিরিজের ফোনে মিডরেঞ্জ-সেগমেন্টে ক্রেতাদের জন্য উচ্চ মান ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ক্যামেরার পাশাপাশি অন্যান্য স্পেসিফিকেশনের দিকেও বিশেষ প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে বাংলাদেশে টেকনো’র ক্যামন সিরিজ অন্যদের তুলনায় বেশ ভাল ক্যামেরা ফোনের ট্যাগ লাগিয়ে নিয়েছে। এর সত্যতাও মিলেছে টেকনো ইউজারদের সাথে কথা বলে। দামের তুলনায় যেসব স্পেসিফিকেশন ব্যবহার করা হয়েছে তা নিঃসন্দেহে যুগোপযোগী।

বাংলাদেশের বাজারে মাত্র বছর পার করতে যাওয়া ব্র্যান্ড হিসেবে টেকনো ইতোমধ্যে বেশ প্রভাব তৈরি করেছে। এরই ধারাবাহিকতা নিয়ে ট্রানশান বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, জনাব রেজওয়ানুল হক বলেন, “টেকনো’র ক্ষেত্রে আমরা ক্রেতাদের হাতে সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চ-মানসম্পন্ন স্মার্টফোন তুলে দেয়ার প্রত্যয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। এক্ষেত্রে আমরা এই অঞ্চলের মানুষের ত্বকের রঙের দিকটি বিবেচনায় রেখে আমাদের ক্যামেরাগুলো এমনভাবে অপ্টিমাইজ করেছি যাতে ছবি তোলার সময় মুখাবয়বে বেশী আলো ধারণ করতে পারে এবং ছবিটির সৌন্দর্য ফুটিয়ে তোলে। টেকনোর স্মার্টফোনে তোলা ছবিগুলো এজন্যই এত সুন্দর ও প্রাণবন্ত হয়। ক্যামন সিরিজের ক্যামন আই টু এবং ক্যামন আই টু এক্স দুটি মডেলেই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ডুয়েল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। হালের চাহিদা নচ-ডিসপ্লের পাশাপাশি ৩৭৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি ফোন দুটির পারফর্মেন্সে এনেছে দারুণ এক মাত্রা। আমরা সাশ্রয়ের মধ্যে সেরাটাই ক্রেতাদের হাতে তুলে দেয়ার চেষ্টা করেছি”।

মানবকণ্ঠ/এএম