টাঙ্গাইলে এএসআইয়ের বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

মানবকণ্ঠ ডেস্ক:
টাঙ্গাইলে এক এএসআইয়ের বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন হয়েছে। টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে শুক্রবার বিকেলে এই সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসীর স্ত্রী লিখিত বক্তব্যে বলেন, স্বামী বিদেশ থাকায় তিনি ১৩ বছর বয়সী ছেলেকে নিয়ে বাড়িতে থাকেন। এই সুযোগে এএসআই মিন্টু দীর্ঘদিন ধরে তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন।
রাজি না হওয়ায় ২৭ জুন রাত ৮টার দিকে তার ঘরে এসে মুখ চেপে ধরে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। যাওয়ার সময় তিনি ধর্ষণের চিত্র ভিডিও করা হয়েছে জানিয়ে এটা ইন্টানেটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেন। এরপর ধর্ষণের চিত্র প্রকাশের ভয় দেখিয়ে পুনরায় ধর্ষণের চেষ্টা করেন। খবর বিডিনিউজের
মানসম্মানের ভয়ে ঘটনাটি তিনি গোপন রাখেন জানিয়ে বলেন, গত ২০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় মিন্টু পুনরায় ধর্ষণের চেষ্টা করেন। কিন্তু ডাকচিৎকার শুরু করলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে। এ সময় মিন্টু হত্যার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যান।
এরই মধ্যে তার স্বামী দেশে ফিরে আসার পর তিনি গত বৃহস্পতিবার থানায় মামলা করতে যান, কিন্তু পুলিশ মামলা নেয়নি বলে তার অভিযোগ। সংবাদ সম্মেলনে তার স্বামী ও দেবর উপস্থিত ছিলেন।
এ বিষয়ে ঘাটাইল থানার ওসি মহিউদ্দিন বলেন, এএসআই মিনহাজ উদ্দিন মিন্টুর বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য বলা হয়েছে। তার বর্তমান কর্মস্থল সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশেও চিঠি দেয়া হয়েছে।