ঝাড়ু হাতে মন্ত্রী, পরিষ্কার করলেন ডিসি হিল

চট্টগ্রাম নগরীর ঐতিহ্যবাহী ডিসি হিলের গায়ে লেগে থাকা ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করতে নেমেছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। শনিবার ভোরে ‘ইয়োগা প্রভাতী’ খ্যাত ঐতিহ্যবাহী এ শান্তির নীড় পরিষ্কার কাজে একটু দ্বিদ্ধাবোধ না করে ইয়োগা অনুশীলনকারীদের পরিষ্কার কাজে নিয়োজিত হন।

এ নিয়ে মন্ত্রীর মহানুভবতার পরিচয় মিলেছে বলে মন্তব্য করেন ইয়োগা অনুশীলনকারীরা। ‘পরিচ্ছন্নতা নিজেরাই করি, কারও জন্য অপেক্ষা নয়’-শীর্ষক এই উদ্যোগে সামিল হয়ে মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনও গর্ববোধ করেন বলে জানান।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, ডিসি হিল চট্টগ্রামের মানুষের আত্মার জায়গা। আমি নিয়মিত রমনা পার্কে প্রাতভ্রমণে বের হই। সেখানে আগে ময়লা-আবর্জনায় ঠাসা ছিল। দিনভর নানা অনুষ্ঠান হতো। আমি সব বন্ধ করে দিয়েছি। কিন্তু ডিসি হিলে যখনই আসছি তখনই দেখছি নোংরা। তাই নিজেদের সুরক্ষায় নিজেদেরকেই এই অঙ্গন পরিষ্কারের উদ্যোগে সামিল হয়েছি।

মন্ত্রী আরো বলেন, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন না হলে স্বাস্থ্য সুন্দর হবে না, মনও হবে না পবিত্র। এজন্যই আমাদের এই উদ্যোগ। আমরা কারও দিকে তাকিয়ে থাকতে চাই না। এজন্য এই কর্মসূচির নাম দিয়েছি-‘পরিচ্ছন্নতা নিজেরাই করি, কারও জন্য অপেক্ষা নয়।’

তিনি বলেন, নির্দিষ্ট জায়গায় না ফেলে এখানে ওখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলে ডিসি হিলকে অপরিষ্কার করে রাখা হয়েছে। সিটি কর্পোরেশন ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে বলব, আগামীতে যেন ডিসি হিলকে সবসময় পরিষ্কার রাখা হয়। এছাড়াও বছরে নববর্ষ, রবীন্দ্র ও নজরুলের জন্ম-মৃত্যু বার্ষিকী ছাড়াও অন্য কোন অনুষ্ঠান করতে দেয়া না হয়। এটা শান্তির জায়গা, হইহুল্লার করার জায়গা না। এ কর্মসূচিতে মন্ত্রীর সঙ্গে চট্টগ্রামের আরো বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন।

মানবকণ্ঠ/এমআইসি/এফএইচ

One Response to "ঝাড়ু হাতে মন্ত্রী, পরিষ্কার করলেন ডিসি হিল"

  1. M Shahidullah   23/09/2017 at 10:18 PM

    এছাড়াও বছরে নববর্ষ, রবীন্দ্র ও নজরুলের জন্ম-মৃত্যু বার্ষিকী ছাড়াও অন্য কোন অনুষ্ঠান করতে দেয়া না হয়। এটা শান্তির জায়গা, হইহুল্লার করার জায়গা না।
    This comment indicates how ignorant and arrogant this minister is.