জেলা রেজিস্ট্রার ও ১০ সাব-রেজিস্ট্রারকে অফিসে পায়নি দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সেবার মান উন্নয়ন এবং ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা রেজিস্ট্রার অফিসে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) এনফোর্সমেন্ট টিম। দুদকের হটলাইন-১০৬-এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল রোববার সকাল ১১টায় জেলা রেজিস্ট্রার অফিসে গিয়ে পাওয়া যায়নি জেলা রেজিস্ট্রার ও ১০ সাব-রেজিস্ট্রারকে। অনেক কর্মকর্তা-কর্মচারী ছিলেন না তাদের নির্ধারিত টেবিলে। অধস্তন কর্মচারী ও দালালদের টেবিলে ফাইলপত্র নাড়াচাড়া করতে দেখা গেছে। রাজধানীর তেজগাঁওয়ে জেলা রেজিস্ট্রার অফিসে অভিযান চালিয়ে এমন চিত্র দেখতে পায় দুদকের বিশেষ টিম।
দুদক জানায়, সকালে দুদকের হটলাইন-১০৬ এ জেলা রেজিস্ট্রার অফিসে অনিয়মের অভিযোগ আসে। অভিযাগ পাওয়ার পর পরই ঢাকা জেলা রেজিস্ট্রারের প্রধান অফিসে গিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের টেবিল ফঁাঁকা পাওয়া যায়। জেলা রেজিস্ট্রার অফিসে রয়েছে বিভিন্ন জোনের ১০ জন সাব-রেজিস্ট্রারের অফিস। কিন্তু সকাল ১১টা পর্যন্ত সব সাব-রেজিস্ট্রার অনুপস্থিত ছিলেন। ১১টার কিছু সময় পরে অফিসে উপস্থিত হন মোহাম্মদপুর জোনের সাব-রেজিস্ট্রার আশরাফ উদ্দিন ভূইয়া। তার কাছে অনিয়ম ও অফিসে অনুপস্থিতির বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত তিনি দুদকের মহাপরিচালকের কাছে অঙ্গীকার করেন যে, এরপর থেকে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে কেন অবৈধ কর্মকাণ্ডকে প্রশ্রয় দেয়া হবে না। তার অফিস দুর্নীতিমুক্ত থাকবে এবং তিনি সময়মতো অফিসে হাজির হবেন।