জামিন পেলেও এখনই মুক্তি পাবেন না খালেদা জিয়া: মওদুদ

জামিন পেলেও এখনই মুক্তি পাবেন না খালেদা জিয়া: মওদুদ

বিএনপির চেয়ারপার্সনের মুক্তিতে কিছুটা বাধা আছে তিনি এই মুহূর্তে মুক্তি পাবেন না বলে জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার আইনজীবী মওদুদ আহমদ বলেছেন। তিনি জানান, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যান্য মামলায় আসামি দেখানো হয়েছে। নিম্ন আদালতের কতগুলো মামলায় বিএনপির চেয়ারপার্সনকে আসামি দেখানো হয়েছে। এ মামলাগুলোতে তার জামিন নিতে হবে। এই জামিন নিতে যতটুকু সময় লাগে, সে সময়টুকু পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। চেষ্টা করব খুব দ্রুত করার।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাগারে থাকা বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আপিল বিভাগ বহাল রাখার রায়ের পর সাংবাদিকের প্রশ্নে এসব কথা বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

খালেদা জিয়ার জামিন বহাল রেখে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চর বুধবারের রায়ের পর সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতির কক্ষের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মওদুদ আহমেদ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য অভিযোগ করে বলেন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের মুক্তি বিলম্বিত করতে সরকার নানা কৌশলে চেষ্টা করছে, করবে।

আপিল বিভাগ খালেদা জিয়ার জামিন বহাল রাখায় নিম্ন আদালতে বিএনপির চেয়ারপার্সনের জামিন পেতে খুব বেশি অসুবিধা হবে না বলে মনে করেন মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, আমরা খুব শিগগির চেষ্টা করব মামলাগুলোতে জামিন নিতে। আমাদের একটি আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। সেই জামিন পাওয়ার পর খালেদা জিয়া আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন। খুব শিগগির ফিরে আসবেন।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নিম্ন আদালতে কতগুলো মামলা আছে— এমন প্রশ্নে মওদুদ আহমদ জানান, এখন পর্যন্ত সাতটি মামলা আছে। তিনটি কুমিল্লায়, দুটি ঢাকায়, একটি নড়াইলে ও একটি পঞ্চগড়ে। এসব মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানোর আদেশ আছে। যে কারণে এই মুহূর্তে তিনি মুক্তি পাবেন না।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডাদেশ দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। এরপর থেকে খালেদা জিয়া নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন। এই মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও রাষ্ট্রপক্ষ পৃথক আপিল করেছিল। দুটি আপিলই আজ খারিজ করেছেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

আদেশে আপিল বিভাগ বলেছেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাইকোর্টে পেপারবুক প্রস্তুত। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চকে আপিল (দণ্ডাদেশের রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল) আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত।

মানবকণ্ঠ/এসএস