ছুটির দিনে জমে উঠেছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা

বিশেষ মূল্যছাড় আর উপহারে ছুটির দিনে রাজধানীতে জমে উঠেছে ‘টেকশহর ডটকম স্মার্টফোন অ্যান্ড ট্যাব এক্সপো ২০১৮’। ৩ দিনব্যাপী এই মেলার দ্বিতীয়দিন চলছে শুক্রবার। এদিন সকাল থেকেই দর্শনার্থীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠে ঢাকার আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) দেশের প্রযুক্তিখাতের পণ্য প্রদর্শনীর সবচেয়ে বড় এই আয়োজন। ছুটির দিন থাকায় বড়দের পাশাপাশি ছোটদের ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহন ছিল দেখার মতো। বিক্রিও হচ্ছে বেশ।

মেলায় দেশি বিদেশি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে স্যামসাং, টেকনো, শাওমি, উই, হুয়াওয়ে, এলজি স্মার্টফোন, অপ্পো, সিম্ফনি, লাভা, নকিয়া, লেনোভো, আসুস জেনফোন, উইনম্যাক্স, মাইক্রোম্যাক্স, ডিসিএল, ডিটেল, এডাটা, কিকসা ডটকম, আজকের ডিল, মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে, কুইক ফিক্স, বিজয় ডিজিটালসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহন করেছে। মেলা উপলক্ষে ইতোমধ্যে ব্র্যান্ডগুলো নানা ধরনের ছাড়-উপহার দিচ্ছে।

মেলায় স্যামসাং মোবাইলে রয়েছে নির্দিষ্ট কিছু মডেলের স্মার্টফোনের উপর নির্দিষ্ট পরিমান মূলছাড়। এছাড়াও গ্যালাক্সি এ৮ প্লাস ফোন মেলার প্রথম দিন থেকেই এর প্রি অর্ডার করা যাচ্ছে। রয়েছে নানা ধরনের উপহার চাবির রিং, ট্র্যাভেল ব্যাগ, সুয়েটার, জ্যাকেট, লেদার বক্স, ভিয়ারগিয়ারসহ আরো অনেক কিছু।

টেকনো মোবাইল টেকশহর স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় ফোনের মূল্যের উপর ১০ শতাংশ মূল্যছাড় দিচ্ছে। এছাড়াও প্রতিটি ফোনের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা উপহার। উপহার হিসেবে রয়েছে ব্যাকপ্যাক, টি-শার্ট, ক্যাপ, সেলফি স্টিক ও চাবির রিং।

মেলাতে শাওমি প্রতিটি হ্যান্ড সেটে রয়েছে ফ্রি উইন্টার জ্যাকেট। এছাড়া প্রতিদিন র‌্যাফেল ড্র রয়েছে শাওমি স্টলে।

উই মোবাইল স্টলে মিলছে একটি কিনলে একটি ফ্রি অফার। এছাড়া রয়েছে সর্বোচ্চ ৩০% পর্যন্ত মূল্যছাড়। এছাড়া রয়েছে ব্লুটুথ, ব্যাক কভার, টি-শার্ট, ব্যাকপ্যাক।

হুয়াওয়ে টেকনোলজিস বাংলাদেশ স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় সর্বোচ্চ ২০% মূল্যছাড় দিচ্ছে। এছাড়া রয়েছে ট্যাব ও ফোনের জন্য আলাদা আলাদা উপহার।

মেলায় এলজি মোবাইলের ছয়টি মডেলের স্মার্টফোন রয়েছে। যেগুলো ৮ হাজার টাকা থেকে শুরু হয়ে ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস। উপহার হিসেবে রয়েছে ব্যাগপ্যাক, জ্যাকেট, ক্যাপ, ব্লুটুথ স্পিকার। এছাড়া ক্রেতাদের পিটিসি ব্যাংক চেক দিয়ে কিস্তিতে ফোন কেনার সুযোগও রয়েছে।

অপ্পো ফোন কিনলেই উপহার হিসেবে যাওয়া যাবে গিফট বক্স। গিফট বক্সে রয়েছে সেলফি স্টিক, হেড ফোন, ওয়াটার পট, কি রিং। নির্দিষ্ট কিছু ফোনের উপর রয়েছে মূল্য ছাড়। এছাড়া মেলায় অপ্পো এফ৫ ৬ জিবি রেড ফোন পাওয়া যাচ্ছে।

দেশের নম্বর ওয়ান ব্র্যান্ড হিসেবে স্বীকৃত সিম্ফনি স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় ৫ শতাংশ ক্যাশব্যাক অফার দিচ্ছে। রয়েছে নির্দিষ্ট বেশ কিছু মডেলের স্মার্টফোনের উপর ৫% ডিসকাউন্ট। এছাড়া উপহার হিসেবে রয়েছে টি-শার্ট, সেলফি স্টিক, মোবাইল রিং, চাবির রিং, ব্লুথ স্পিকার, পাওয়ার ব্যাংক ও ব্যাকপ্যাক।

নকিয়া মোবাইলে ৫০০ টাকা ছাড়া রয়েছে। এছাড়া লাভা, লেনোভো, ডিটেল, ডিসিএল, উইনম্যাক্স, মাইক্রোম্যাক্সের স্মার্টফোন মেলায় পাওয়া যাচ্ছে। স্মার্টফোন ছাড়াও মেলায় স্মার্টফোনের আনুষঙ্গিক গ্যাজেট বিক্রি করবে এডাটা, কিকশা ডটকম, আজকের ডিলসহ আরো কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। রয়েছে , মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে, কুইক ফিক্স এবং অল্পদামে ট্যাবলেট নিয়ে এসেছে বিজয় ডিজিটালের স্টল।

দেশে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে এটিই সবচেয়ে বড় আয়োজন। অনুষ্ঠান ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান এক্সপো মেকারের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট নিয়ে এটি নবম আয়োজন। চলবে আগামীকাল ১৩ জানুয়ারি পর্যন্ত।

এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান জানান, প্রদর্শনী উপলক্ষে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ ছাড় ও উপহার দিচ্ছে। দর্শকরা প্রযুক্তির আধুনিক সব স্মার্ট ডিভাইস যাচাই বাছাই করে দেখতে ও কিনতে পারছেন। রয়েছে অন্যান্য অনেক আয়োজন।

এবারের মেলার টাইটেল স্পন্সর দেশের আইসিটি ও টেলিকম বিষয়ক শীর্ষস্থানীয় নিউজ পোর্টাল টেকশহরডটকম। প্ল্যাটিনাম স্পন্সর স্যামসাং ও টেকনো মোবাইল। গোল্ড স্পন্সর শাওমি ও উই। সিলভার স্পন্সর হুয়াওয়ে, এলজি স্মার্ট ফোন, অপ্পো ও সিম্ফনি। পার্টনার হিসেবে রয়েছে এডুমেকার। মেলার টিকিট বুথ স্পন্সর কিকসা ডটকম।

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে। এবারও মেলা উপলক্ষে স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপোর অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজে ‘টেকনো মোবাইল’-এর সৌজন্যে (https://www.facebook.com/STExpo) স্মার্ট বাজ কুইজ কনটেস্ট-এর আয়োজন করা হয়েছে। এতে বিজয়ীরা আকর্ষণীয় পুরস্কার পাবেন।

প্রদর্শনীর সব আপডেট ও খবর মেলার অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজ (https://www.facebook.com/STExpo ) এবং দেশের আইসিটি ও টেলিকম বিষয়ক শীর্ষস্থানীয় নিউজ পোর্টাল টেকশহর ডটকমে (techshohor.com) পাওয়া যাচ্ছে।

মানবকণ্ঠ/বিএএফ