‘ছদ্মবেশী’ মুক্তিযোদ্ধারা ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে: কাদের

‘ছদ্মবেশী’ মুক্তিযোদ্ধারা ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এসব ছদ্মবেশী সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও ছদ্মবেশী মুক্তিযুদ্ধাদের বাংলাদেশের জনগণ আবারো পরাজিত করবেন।

রোববার সকালে ফেনীতে বিজয় দিবসের স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নীল নকশা অনুযায়ী ঐক্যফ্রন্ট নিজেরা নিজেদের উপর হামলা করে সরকারের উপর, আওয়ামী লীগের উপর দোষ চাপানোর অপচেষ্টায় মেতে উঠেছে। জনগণ তাদের এই দুরভিসন্ধি বুজতে পেরেছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর নৌকায় মার্কায় ভোট দিয়ে দেশের জনগণ আবারো সমুচিত জবাব দেবেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে যারা নিশ্চিত পরাজয় জেনে অপশক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। তারাই জনগণের পক্ষ থেকে সাড়া না পেয়ে নিজেরা আজকে উস্কানিমূলক তৎপরতায় লিপ্ত হয়েছেন। এতে সরকার বা আওয়ামী লীগের কোন করণীয় নেই।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নোয়াখালী ও ফরিদপুরে দু’জন আওয়ামী লীগ কর্মী খুন হয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন পর্যন্ত কোন বিএনপি কর্মীকে প্রাণ দিতে হয়নি। যত চক্রান্তই হোক ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হবেই হবে। ইনশাল্লাহ কোন অপশক্তি নির্বাচনকে বানচল করতে পারবে না ।

নোয়াখালীর সোনাইমুড়িতে বিএনপির ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনের উপর হামলা প্রসঙ্গে কাদের বলেন, জেনে নেন তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন কিভাবে হামলার চক্র বিএনপি করেছে। তারাই উস্কানি দিয়েছে। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করেছে। দোকানপাট ভাংচুর করেছে। তারপর পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে পুলিশকে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছে। সেই অবস্থায় মাহবুব উদ্দিন খোকন রবার বুলেটে আক্রান্ত হয়েছেন।এই অবস্থায় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে তিনি হাসপাতাল ছেড়েছেন ।

বিজয় দিবস পালনে ফেনী জেলা প্রশাসন, আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠন মুক্তি বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

এই সময় ফেনী-২ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম হাজারীসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মানবকণ্ঠ/এএম