চুয়াডাঙ্গায় বোমাসহ বিএনপি-জামায়াতের ১১ নেতাকর্মী আটক

চুয়াডাঙ্গায় বোমাসহ বিএনপি-জামায়াতের ১১ নেতাকর্মী আটকচুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার আসমানখালী ভূমি অফিসের কাছ থেকে শক্তিশালী ৬ টি তাজা বোমাসহ ১১ জন বিএনপি-জামায়াতের নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার বিকাল ৫ টার দিকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো- আলমডাঙ্গা উপজেলার নোয়া-দূর্গাপুর গ্রামের মৃত টেঙর আলী ইউনিয়ন জামায়াত সেক্রেটারী আলতাফ হোসেন (৪৭), আলিয়ারনগর গ্রামের জয়নাল বিশ্বাসের ছেলে জামায়াতের ওয়ার্ড সভাপতি ডা. হেলাল উদ্দীন (৫৬), শালিখা গ্রামের আব্দুল বারীর ছেলে জামায়াত কর্মী হাসানুজ্জামান (৩৩), একই গ্রামের মৃত বিশা মেম্বারের ছেলে বিএনপি কর্মী দেলোয়ার হোসেন (৩০), হারুণ অর রশীদের ছেলে বিএনপি কর্মী আনিছুর রহমান (৫৫), মৃত নবিছদ্দীন এর ছেলে বিএনপি কর্মী রাজু আহম্মেদ (৪৩), গড়গড়ি গ্রামের বিশারত মন্ডলের ছেলে বিএনপি কর্মী দেলোয়ার হোসেন (৩০), মৃত মহব্বত আলীর ছেলে বিএনপি কর্মী হাবিবুর রহমান (৫০), হাটবোয়ালিয়া গ্রামের রবিউল হুদার ছেলে বিএনপি কর্মী আতাউল হুদা (৫৫), পার-দুর্গাপুর গ্রামের হাতেম আলীর ছেলে বিএনপি কর্মী খায়রুল ইসলাম (৩৮), একই গ্রামের মৃত ফারুক হোসেনের ছেলে বিএনপি কর্মী আব্দুল মান্নান (৫৮) ও নান্দাবর গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে বিএনপি কর্মী গোলাম রসুল (৪২)।

আলমডাঙ্গা থানার ওসি (তদন্ত) লুতফুল কবীর জানান, রবিবার বিকালে ২০-২৫ জন আসমানখালী ভূমি অফিস সংলগ্নে জড়ো হয় নাশকতা সৃষ্টির জন্য। এ খবরের ভিত্তিতে থানা-পুলিশের একটি বিশেষ দল অভিযান চালিয়ে ১১ জনকে আটক করে। তাদের কাছ থেকে ৬ টি শক্তিশালী তাজা বোমা উদ্ধার করা হয়।

আলমডাঙ্গা থানার ওসি আবু জিহাদ মোঃ ফকরুল আলম খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিএনপি-জামায়াতের নেতা-কর্মীরা নাশকতা সৃষ্টি করার জন্য ঘটনাস্থলে জড়ো হলে তাদেরকে পুলিশ গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে আলমডাঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/ডিএইচ