চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন: ১ লাখ টাকা জরিমানা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সংবাদদাতা:
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে ধর্ষকসহ ৩ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান এ রায় প্রদান করেন। গতকাল বুধবার দুপুরে আসামীদের উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন বিচারক। এ ছাড়া প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। জরিমানার অর্থ ওই কিশোরী (ধর্ষিতা) প্রাপ্ত হবে বলেও রায়ে উল্লেখ করা হয়।
দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলো জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দাইপুকুরিয়া ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের মিছু আলীর ছেলে জিয়ারুল ইসলাম (২৮), একই উপজেলার বাটা গ্রামের এসান আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম(৪০) ও কাশিয়াবাড়ি খাসপাড়া গ্রামের মৃত. সাজু আলীর ছেলে এজু ওরফে নজু ওরফে নজরুল (৪৯)। মামলার বিবরণ ও অতিরিক্ত পিপি আঞ্জুমান আরা জানান, ২০১৩ সালের ২০ আগষ্ট শিবগঞ্জের চন্ডিপুর গ্রামের মাজহারুল ইসলামের কিশোরী কন্যা পাশের কাশিয়াবাড়ি গ্রামে খালুর বাড়ীতে বেড়াতে যায়। খালুর বাড়িতে রাতে ঘুমিয়ে গেলে রাত ১ টায় মাটির ঘরের শিধ কেটে প্রবেশ করে আসামীরা। ওই মেয়েটিকে অপহরণ করে জিয়ারুল ও তার সহযোগীরা। কিশোরীকে গড়পাড়ায় একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হয়। পর দিন সকালে স্থানীয় লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাগান থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে তাকে। এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় মোট ৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।