চকবাজারে নিহত খবিরের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম

পুরান ঢাকার চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মৃত্যুর মিছিলে ছিল কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার খবির উদ্দিন নাহিদও (৩৮)। নিহত নাহিদ উপজেলার জগন্নাথদীঘি ইউনিয়নের আতাকরা গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার মৃত সৈয়দ কামাল উদ্দিন ছেলে। মারা যাওয়ার ৩ দিন অতিবাহিত হলেও থামছে না কান্নার রোল। চলছে শোকের মাতম।

নিহতের বড় ভাইয়ের ছেলে সৈয়দ আব্দুল হাই মিল্লাত জানান, আমার কাকা খুব ভাল মানুষ ছিলেন। তাকে হারিয়ে আমরা অভিভাবক শূন্য হলাম। কাকা ঢাকার চকবাজারে দীর্ঘ দিন প্লাস্টিক ও চাউলের ব্যবসা করতো। তিনি স্ত্রী আকলিমা আক্তার এবং ২ কন্যা নিয়ে ঢাকায় বসবাস করতেন। বড় মেয়ে আয়েশা নাহিদ (৭) রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুলের প্রথম শেণির ছাত্রী ও ছোট মেয়ে আদিবা নাহিদ নাতাশা (৫)।

ঘটনার রাতে নাহিদ ১২ লাখ টাকার মালামাল বিক্রি করে টাকা ক্যাশ বাক্সে রেখে মালামাল ডেলিভারি দিতে গুদামে প্রবেশ করেছিলেন। আগুন লাগার খবরে দোকানে প্রবেশ করতে গিয়েই তাকে অকালে জীবন দিতে হয়েছে। এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে তার মরদেহ বাড়িতে আনার পর স্বজনদের আহাজারিতে এলাকায় শোকাবহ পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি মো. আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান, শুক্রবার সকাল ১০টায় গ্রামের বাড়িতে নাহিদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। জানাজায় এলাকার সর্বস্তরের লোকজন অংশ নেন।

মানবকণ্ঠ/এএম