ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশ, আমরাও

আমাদের ভাষা গণমানুষের- এই স্লোগান ধারণ করে আমরা পাঠকের কাছে উপস্থিত হয়েছিলাম ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১২। সময়ের স্রোতে আজ মানবকণ্ঠ ৭ম বছরে। এ দীর্ঘ সময়ে মানবকণ্ঠ কখনোই তার আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়নি। প্রিয় পাঠক, আপনাদের সহযোগিতা এবং গ্রহণযোগ্যতা না পেলে আমাদের অগ্রযাত্রা থমকে যেত। আপনাদের প্রত্যাশাকে ধারণ করেই আমরা প্রতিনিয়ত নিজেদের বদলানোর চেষ্টা করছি। সত্য এবং ন্যায়ের পক্ষে আমাদের বস্তুনিষ্ঠতা ধরে রাখতে চেয়েছি। যাতে করে কখনোই সত্যের অপলাপের দিকে আমাদের নজর ছিল না। শত সীমাবদ্ধতার পরও আমরা সত্যের পক্ষে আছি। পাঠকই আমাদের পরীক্ষক। প্রতি ভোরে আপনাদের টেবিলে আমাদের যে পরীক্ষা, তাতে আমরা উৎরে যেতে পেরেছি বলেই আজ সপ্তম বছরে আমাদের প্রকাশনা। আমরা সবার আগে নয়, বরং সত্য প্রকাশে চেষ্টা করেছি বলেই আমাদের প্রতি পাঠকের এই ভালোবাসা। আমরা গড্ডালিকা প্রবাহে গা ভাসিয়ে দিতে চাইনি। আর চাইনি বলেই আপনাদের ভালোবাসা আমাদের সমৃদ্ধ করেছে। এ আমাদের বড় প্রাপ্তি। তাই আপনাদের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতার সীমা নেই।

সময় কখনো থেমে থাকে না, চির বহমান। আমরা প্রতিযোগিতার দৌড়ে প্রথম হতে চাইনি। আমরা চেয়েছি পাঠকের ভালোলাগা এবং পছন্দকে গুরুত্ব দিতে। তাই যেমন সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে তেমনিভাবে আমাদের ফিচার পাতাগুলোতে তার প্রতিফলন উঠে এসেছে। স্বাধীনতা আমাদের শ্রেষ্ঠ অর্জন। বাঙালি জাতির এই শ্রেষ্ঠ অর্জন যেন সমুন্নত থাকে, দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা যেন বাধাহীন হয়, তাই আমরা মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করি। আমাদের সম্পাদকীয় নীতিতে মুক্তিযুদ্ধ তাই প্রথম।

নিম্ন আয়ের দেশ থেকে আমরা মধ্যম আয়ের দেশের দিকে যাত্রা শুরু করেছি। সেই যাত্রায় আমরাও শরিক। উন্নয়নের জন্য প্রথমেই প্রয়োজন দুর্নীতিমুক্ত সমাজ। আমরা দুর্নীতিবিরোধী পদক্ষেপের অংশ হিসেবে যেখানেই দুর্নীতি যেখানেই অন্যায় তার বিরুদ্ধে সচেষ্ট থেকেছি। ফলে দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে আমাদের অবস্থান বরাবরই স্পষ্ট।

মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে পুরো দেশ যখন সোচ্চার, আমরা গণমানুষের সেই আকাক্সক্ষাকেই তুলে ধরেছি। যাতে করে বিচার প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হয়। যাতে করে কলঙ্কমুক্ত হয় দেশ।

মানবকণ্ঠ প্রকাশের উদ্দেশ্য গণমানুষের ভাষাকে সমৃদ্ধ করা। সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে তাদের কণ্ঠস্বরকে সোচ্চার করা। আমরা সেই লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত হইনি। আজ প্রতিষ্ঠাবার্ষির্কীতে আমাদের সব পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি ভালোবাসা।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ