গাজীপুরে ব্যবসায়ী হত্যার দায়ে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

গাজীপুরে ব্যবসায়ী মিলন ভূঁইয়া হত্যা মামলায় সাতজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং একজনকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এ মামলায় অব্যাহতি দেয়া হয়েছে দুইজনকে । সোমবার সকালে গাজীপুর জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক এ কে এম এনামুল হক এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় সাতজন আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। নিহত মিলন মহানগরীর লক্ষীপুরা এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- মোহাম্মদ কাইয়ুম, রাজীব হোসেন ওরফে রাজু, মোহাম্মদ রাজীব হোসেন, মোহাম্মদ ফারুক হোসেন. মোহাম্মদ আলী ওরফে ছোট আলী,মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম ওরফে পারভেজ, মোহাম্মদ আলী হোসেন ওরফে হোসেন আলী। পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি হলেন মো. মাসুম ওরফে মামা মাসুম। খালাসপ্রাপ্তরা হলো মো. এনামুল হক ও শামসুল হক।

গাজীপুর আদালত পুলিশের ওসি রবিউল ইসলাম জানান, মিলন ভূঁইয়া নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত বাঁশ-কাঠ, প্লেন সিট ভাড়ার ব্যবসা করতেন। ব্যবসায়ের পাওনা টাকা আদায় করাকে কেন্দ্র করে আসামিদের সঙ্গে তার বিরোধ সৃষ্টি হয়। ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় গাজীপুর মহানগরের ভাওয়াল জাতীয় উদ্যানের সামনে আসামিরা মিলনের গতিরোধ করে এবং এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

খবর পেয়ে তার স্বজনরা মিলনকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় মিলনের মামা আকতার হোসেন বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। সিআইডি এ ঘটনা তদন্ত করে ১০জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে সোমবার আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় সাতজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন বাকিরা পলাতক।

মানবকণ্ঠ/এএএম/এসএ