গবেষণা বলছে হৃদরোগীদের জন্য নারী ডাক্তাররাই সেরা

যেসব নারী হৃদরোগে আক্রান্ত বা হার্ট অ্যাটাক হয়েছে, তাদের চিকিৎসা যদি হাসপাতালে একজন নারী ডাক্তারকে দিয়ে করানো হয় তাহলে তার বেঁচে থাকার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।
যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে।
গত ১৯ বছর ধরে ৫ লাখ ৮০ হাজার হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত রোগীদের ওপর এ সংক্রান্ত গবেষণা পরিচালনা করা হয়।
সার্বিক দিক বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে, যেসব রোগীকে পুরুষ ডাক্তার দেখভাল করেছেন তাদের মধ্যে ১৩ দশমিক তিন শতাংশ মৃত্যুবরণ করেছে।
অন্যদিকে নারী ডাক্তারের তত্ত্বাবধানে থাকা রোগীদের মধ্য মারা গেছে ১২ শতাংশ।
তবে কোনো পুরুষ ডাক্তারের দলে যদি কয়েক নারী সহকর্মী থাকেন তাহলেও রোগীর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।
গবেষকরা একটি তত্ত্বের কথা উল্লেখ করে বলেন, নারী রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার ক্ষেত্রে অনেক পুরুষ চিকিৎসক ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন।
স্বাধীন বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে, এই ফলগুলো যুক্তরাজ্যের হাসপাতালগুলোতে প্রয়োগের আগে এ নিয়ে আরো কাজ প্রয়োজন।
১৯৯১ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ফ্লোরিডা হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া বিভিন্ন রোগীর মেডিকেল তথ্য পর্যালোচনা করেন গবেষকরা। রোগীদের বয়স, জাতি এবং মেডিকেল ইতিহাসের মতো বিষয়গুলো বিবেচনা করার পর, তারা দেখেছেন যে একজন রোগীকে যদি একজন নারী চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসা করানো হয়, তবে রোগীর হার্ট অ্যাটাক থেকে বেঁচে ফেরার সম্ভাবনা বেশি থাকে। সূত্র: বিবিসি – নারী ডেস্ক