খালেদা ছিলেন দুর্নীতিবাজ প্রধানমন্ত্রী: গোলাম দস্তগীর এমপি

খালেদা ছিলেন দুর্নীতিবাজ প্রধানমন্ত্রী: গোলাম দস্তগীর এমপিখালেদা জিয়া একজন দুর্নীতিবাজ প্রধানমন্ত্রী ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যতবারই ক্ষমতায় গেছেন ততবারই দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। খালেদা জিয়া ও তার পুত্র তারেক জিয়া বাংলাদেশে রাজনীতিকে দূষণ করেছেন। তারাই জঙ্গীদের দিয়ে সাধারণ মানুষকে হত্যা করিয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া এলাকায় সরকারি মুড়াপাড়া কলেজ মাঠে আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল সমাবেশে তিনি এসব মন্তব্যে করেন।

গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। সাধ্যমতো রূপগঞ্জবাসীর উন্নয়ন করেছি। রূপগঞ্জের লোকজন এক সময় এলাকায় বসবাস করতে পারেনি। বঙ্গবন্ধুর ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পোস্টার টানাতে পারেনি। আমিই প্রথম জনগণকে নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে রাজনীতি শুরু করি।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা বঙ্গবন্ধুর ভালোবাসায় উজ্জীবিত হয়ে আন্দোলনে নামি। জনগণের অধিকার আদায়ে আমার তারাবো বিশ্বরোড দখল করি। এ সময় আমি গুলি খেয়ে শমরিতা হাসপাতালে ভর্তি হই। সেখান থেকে আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়।’

১/১১ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ওয়ান ইলেভেনের পর অনেকে শুধু রাজনীতি নয়, এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। কিন্তু জনগণের ভালোবাসার আমি রাজনীতি ছেড়ে পালাইনি। আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলন শুরু করি।’

উন্নয়ন নিয়ে গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, ভুলতা ফ্লাইওভার, শীতলক্ষ্যা সেতুসহ প্রায় ৩২’শ কোটি টাকার উন্নয়নে আজ রূপগঞ্জ উপজেলা একটি মডেল উপজেলা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার কারণেই এ উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে।

জনসভায় সভাপতিত্ব করেন, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা এবং প্রধান বক্তা ছিলেন, তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী।

জনসমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আলম নিলা, প্রচার সম্পাদক মানজারী আলম টুটুল, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছ, ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার আরিফুল হক ভুঁইয়া, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর হোসেন ভুঁইয়া প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এসএ

Leave a Reply

Your email address will not be published.