ক্যাপ্টেন আবিদও মারা গেছেন

ক্যাপ্টেন আবিদ

নেপালের কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজটির প্রধান বৈমানিক আবিদ সুলতানও মারা গেছেন। বিমান সংস্থাটির জনসংযোগ বিভাগের জিএম কামরুল ইসলাম মঙ্গলবার সকালে বারিধারায় ইউএস বাংলার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমরা কাল জানিয়েছিলাম, ক্যাপ্টেন আবিদ ক্রিটিক্যাল অবস্থায় বেঁচে আছেন। কিছুক্ষণ আগে আমরা খবর পেলাম, উনি আর বেঁচে নেই।

আবিদ সুলতানের এক স্বজন জানান, সোমবারই আমরা খবর পেয়েছিলাম তিনি গুরুতর আহত, শরীরের বেশির ভাগ অংশই পুড়ে গেছে। দুর্ঘটনার পর আশঙ্কাজনক অবস্থায় ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানকে কাঠমান্ডুর নরভিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলো। সেখানেই তিনি মারা যান।

এর আগে স্থানীয় সময় সোমবার বেলা ২টা ১৮ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার সময় বাংলাদেশের বিমান পরিবহন সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজ ৭১ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হয়। যাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত অর্ধ শতাধিক আরোহীর মৃত্যু হয়েছে।

জানা যায়, ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার সময় ড্যাশ-৮ কিউ৪০০ মডেলের ওই উড়োজাহাজটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে এবং আগুন ধরে যায়। এতে এই প্রাণহানীর ঘটনা ঘটে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বিএস ২১১ এর ৭১ আরোহীর মধ্যে ৩২ জন বাংলাদেশি যাত্রী ছিলেন।

মানবকণ্ঠ/এসএস