কাতার বিশ্বকাপে ৪৮ দলে ফিফার সম্মতি

কাতার বিশ্বকাপে ৪৮ দলে ফিফার সম্মতি

২০২৬ বিশ্বকাপ থেকেই মূলত ৪৮ দলের আসর নিয়ে পরিকল্পনা করা হয়েছিল। তবে তার আগেই নতুন এই ফরম্যাট চালু করার ব্যাপারে তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক কাতার। তবে এ ক্ষেত্রে আরব এই ধনকুবের দেশটি একা সামাল দিতে পারবে না। কাতারের মতো এক দেশে ৪৮ দল নিয়ে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হলে বড় রকমের চাপে পড়তে পারে দেশটি। সেদিক বিবেচনায় দেশটিকে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য পরিকল্পনায় বড় রকমের রদবদল আনার পরামর্শ দিয়েছে ফিফা। সেক্ষেত্রে মধ্যপ্রাচ্যের আরো একটি দেশ এই বিশ্বকাপের সহ-আয়োজক হতে পারে।

৩২ দল থেকে ৪৮ দলের বিশ্বকাপ আয়োজনে কাতারকে এবার সমর্থন দিল ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফা। তবে আগামী জুনে প্যারিসে ফিফার কংগ্রেসে এটি নিয়ে পূর্ণ সিদ্ধান্ত হবে। তবে তার জন্য সহযোগী একটি দেশ প্রয়োজন। বিকল্প হিসেবে কুয়েত ও ওমানকে রাখা হয়েছে। এছাড়াও বাহরাইন, সৌদি আরব কিংবা সংযুক্ত আরব আমিরাতের যেকোনো এক বা একাধিক দেশকে সঙ্গে নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজন করতে পারবে কাতার।

আবার চাইলেই যে ওভাবে আয়োজন সম্ভব সেটাও নয়। বাহরাইন, সৌদি আরব ও আরব আমিরাত এরইমধ্যে অর্থনৈতিক অবরোধ দিয়ে বসে আছে কাতারের ওপর। যদিও অবরোধের কারণে ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজন বাঁধাগ্রস্ত হবে বলে মনে করেন না ইনফান্তিনো, আমরা উপসাগরীয় অঞ্চলগুলোর পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত। তবে আমরা সৌভাগ্যবান যে বিষয়টা ফুটবল সম্পর্কিত আর ফুটবলে আপনি কেবল ফুটবল নিয়েই ভাবার সময় পাবেন।

ইনফান্তিনো বলেন, আমি কাতারের প্রতিক্রিয়ায় বেশ সন্তুষ্ট। প্রথমবারের মতো তাদের কাছে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হল, কারণ তারা অনেকটা খোলা বইয়ের মতো, যদি এমনটা হয় সেটা হবে অসাধারণ। না হলেও সেটা হবে দারুণ কারণ। অন্তত আমাদের এ নিয়ে অনুশোচনা হবে না যে আমরা কেনো এটি নিয়ে চিন্তা করলাম না।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.