কাঞ্চন জঙ্ঘা

কাঞ্চন জঙ্ঘা মূলত হিমালয় পর্বতমালার পর্বতশৃঙ্গ। মাউন্ট এভারেস্ট ও কে২ এরপরে এটি পৃথিবীর তৃতীয় উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ যার উচ্চতা ৮ হাজার ৫৮৬ মিটার (২৮ হাজার ১৬৯ ফুট)। এইটি ভারতের সিকিম রাজ্যের সঙ্গে নেপালের পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তে অবস্থিত। কাঞ্চন জঙ্ঘা শব্দটি শুনে তৎসম কাঞ্চন জঙ্ঘা মনে হলেও আসলে নামটি সম্ভবত স্থানীয় শব্দ কাং চেং জেং গা থেকে এসেছে, যার অর্থ তেঞ্জিং নোরকে তার বই ম্যান অব এভারেস্টে লিখেছেন তুষারের পাঁচ ধনদৌলত। এটির পাঁচ চূড়া আছে তাদের চারটির উচ্চতা ৮ হাজার ৪৫০ মিটারের ওপরে। এ ধনদৌলত ঈশ্বরের পাঁচ ভাণ্ডারের প্রতিনিধিত্ব করে, স্বর্ণ, রুপা, রতœ, শস্য এবং পবিত্র পুস্তক।
এলোমেলো ছোট্ট ঝরনা, মুখ ছুঁয়ে যাওয়া ছেঁড়া ছেঁড়া নরম ভেজা মেঘ, গভীর সবুজের হাতছানি, অনাবিল কিছু মুখ এবং সঙ্গে তিনি। গুটিকতক ছড়ানো ছিটনো কাঠের বাড়ি নিয়ে তৈরি পুঁচকি গ্রামও অনন্য ট্যুরিস্ট স্পট। গন্তব্য চেনা সিকিমের গ্রাম অজানা ওখড়ে আর ভার্সে। তার পাশেই বিশ্বের মানুষের ভালোবাসা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে সুন্দরী লাজুক পাহাড় কাঞ্চন জঙ্ঘা।
-সূত্র: ইন্টারনেট