কাজে রাজনীতি আনবেন না: গুগল প্রধান

কাজের মধ্যে রাজনীতিকে বেশি ঢুকতে দিলে এর প্রভাব পড়বে বলে কর্মীদের সতর্ক করেছেন ওয়েব জায়ান্ট গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দার পিচাই, এমন একটি মেমো হাতে পেয়েছে মার্কিন দৈনিক ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। এতে পিচাই বলেন, আমরা কোনো রাজনৈতিক এজেন্ডাকে সমর্থনের জন্য আমাদের পণ্যগুলো পক্ষপাতদুষ্ট করব না। আমাদের উপর ব্যবহারকারীরা যে আস্থা রাখেন তা আমাদের সর্বোত্তম সম্পদ আর আমাদের অবশ্যই সবসময় এটি রক্ষা করা উচিত। যদি কোনো গুগল কর্মী কখনো এই আস্থাকে নিচে নামায়, আমরা তাকে দোষী সাব্যস্ত করব। রাজনৈতিক পক্ষপাতমূলক আচরণে অভিযোগ নিয়ে সার্চ জায়ান্টটি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আর তার সমর্থকদের সমালোচনার মুখে পড়ার পর পিচাই কর্মীদেরকে এই বিবৃতি পাঠালেন, এমনটাই বলা হয়েছে মার্কিন প্রকাশনা বিজনেস ইনসাইডারের প্রতিবেদনে। চলতি বছর আগস্টে ট্রাম্প বলেন, গুগল অনেক মানুষের সুবিধা নিচ্ছে। সেসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সার্চ রেজাল্ট ব্যবহার করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। সম্প্রতি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৭ সালের শুরুতে গুগল কর্মীরা ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদে সার্চ রেজাল্ট কাজে লাগাতে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছিলেন। এদিকে গুগলের উপর রাজনৈতিক চাপ বাড়ছেই। হোয়াইট হাউস গুগল আর ফেসবুকের বিরুদ্ধে ‘অনলাইন প্ল্যাটফর্মে পক্ষপাত’ বিষয়ে একটি অ্যান্টিট্রাস্ট তদন্তের পরিকল্পনা করছে বলে শনিবার খবর বের হয়। এই ঘটনা নিয়ে গুগলের প্রতিনিধিরা তাৎক্ষণিকভাবে কিছু বলেননি বলে উল্লেখ করা হয়েছে মার্কিন প্রকাশনাটির প্রতিবেদনে। – আইসিটি কর্নার ডেস্ক