কর্ণফুলীতে সিডিএ সড়ক দখল করে দোকান নির্মাণ

কর্ণফুলী (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা:
কর্ণফুলীর সিডিএ সড়কে তিন রাস্তার মোড় অবৈধ দখলে। ফলে কাঁচাবাজারের অর্ধলাখ মানুষ ও যান চলাচল চরম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। তারপরেও কর্তৃপক্ষ উদাসীন। সিডিএ সড়ক থেকে বিএফডিসি পথে যাওয়ার মুখে আপেল কমলার দোকানটি একদম সড়কের ওপর। পাশের মাছ বিক্রেতাও সড়কের মাঝখানে বসে বেচাকেনা করছে। ফলে দিন দিন ছোট হচ্ছে সিডিএ সড়ক। বেদখলে যাচ্ছে সরকারি জমি।
উপজেলার প্রধান সড়কগুলোর গা ঘেঁষেই এসব অবৈধ দোকান ঘর। ছোট ছোট ব্যবসায়ীদের দখলে ফুটপাত। আর আনোয়ার সিটির সামনেই সড়কের ওপর অঘোষিত সিএনজি ও ব্যাটারিচালিত রিকশা স্টেশন। ফলে সার্বক্ষণিক লেগে থাকে যানজট আর জনদুর্ভোগ। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোনো বাধা না থাকায় দিন দিন বাড়ছে সড়কের ওপর অবৈধ দোকানঘর ও স্টেশন। এ জায়গায় কোনো ট্রাফিক পুলিশ বা কমিনিউটি পুলিশ না থাকায় বেশ ঝুকিঁপূর্ণ রয়েছে। এ নিয়ে দুর্ভোগগ্রস্ত চরপাথরঘাটা ও ইছানগরের মানুষের ক্ষোভ ও অভিযোগের অন্ত নেই। ব্রিজঘাট কাঁচাবাজারে প্রতিদিনই চোখে পড়ে চলাচলে এমন দুর্ভোগের দৃশ্য। উপজেলার খোয়াজনগর আনোয়ার সিটির সামনে প্রায় সময় যানজট লেগে থাকে।
স্থানীয়দের দাবি, জনবহুল এ জায়গায় যেন একজন ট্রাফিক বা কমিনিউটি পুলিশ নিয়োগ করা হয়। তাহলেই জনগণের সুবিধা ও দীর্ঘ যানজটে পড়ে সড়কেই মূল্যবান সময় নষ্ট হবে না। কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী এ বিষয়ে বলেন, ‘র্কণফুলীর যানজট নিরসনে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে এবং জনদুর্ভোগ নিরসনে সড়কের ওপর সব অবৈধ দোকান ও গাড়ির স্টেশন তৈরির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে উপজেলা প্রশাসন।