কক্সবাজারের পথে খালেদা জিয়া

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে বিতাড়িত অসহায় রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। শনিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে রাজধানীর গুলশানের বাসভবন থেকে যাত্রা শুরু করেন তিনি।

গত সপ্তাহের সোমবার দলের স্থায়ী কমিটির সভায় রোহিঙ্গাদের দেখতে খালেদা জিয়ার কক্সবাজারে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। চোখ ও হাঁটুর চিকিৎসার জন্য তিনমাস লন্ডনে অবস্থান শেষে ১৮ অক্টোবর দেশে ফিরে দলের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান অফিসের মিডিয়া কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান জানান, বিএনপি চেয়ারপার্সন শনিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে তার গুলশানের বাসভবন থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা হয়েছে। নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সিনিয়র নেতারা তার সফরসঙ্গী হবেন।

তিনি জানান, দুপুরে ফেনী সার্কিট হাউজে যাত্রাবিরতি করে বিকেলে যাত্রা শুরু করে রাতে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে পৌঁছে সেখানেই রাত্রিযাপন করবেন তিনি। রোববার সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবেন খালেদা জিয়া। বিকেলে কক্সবাজার সার্কিট হাউজে পৌঁছাবেন এবং সেখানে রাত্রিযাপন করবেন। সোমবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প বালুখালি-১ ও ২, হাকিমপাড়া ও জামতলি পরিদর্শন করে তাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবেন। ওইদিনই চট্টগ্রামে এসে রাত্রিযাপন করে মঙ্গলবার ঢাকায় ফিরবেন।

এদিকে খালেদা জিয়ার এ সফরকে সফল করতে বিএনপির একটি অগ্রবর্তী টিম ঢাকা থেকে কক্সবাজার যেতে বিভিন্ন জেলার নেতাদের সঙ্গে সভা করেছে। দলের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহানের নেতৃত্বে এ টিমে রয়েছেন প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও সহ দফতর সম্পাদক বেলাল আহমেদ। বৃহস্পতিবার এ টিম ঢাকা থেকে রওয়ানা হয়ে কুমিল্লা উত্তর, দক্ষিণ, ফেনী ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলার নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন। এসব সভায় খালেদা জিয়ার যাত্রাপথে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ