এসএসসির ফরম পূরণে বাণিজ্য

এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ করেছেন একাধিক অভিভাবক। এ বছর এসএসসিতে ফরম পূরণের জন্য বিজ্ঞান শাখায় ১ হাজার ৪৫৫ টাকা, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ১ হাজার ৩৫৫ টাকা ধার্য করা হয়। ৭ থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত ফরম পূরণ চলবে। বিলম্ব ফি ১০০ টাকা দিয়ে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত ফরম পূরণ করা যাবে। তবে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন শহরের বেশিরভাগ স্কুলে ৮-১০ হাজার টাকা করে আদায় করা হচ্ছে। আর ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের স্কুলগুলো শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১ হাজার ৫শ’ টাকা থেকে ৮ হাজার টাকা পর্যন্ত অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছে।

এক অভিভাবক জানান, তার বাচ্চা রাজধানীর শাহ আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে। এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে তার কাছ থেকে দশ হাজার টাকা নেয়া হয়েছে। এ জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি কল্যাণ তহবিল, ক্রীড়া, মিলাদ মাহফিল, জরিমানাসহ নানা খাত দেখিয়েছে। এ ছাড়া ইন্টারনেট বিল ও পরিবহন খরচ ধার্য করেছে।

জানা গেছে, জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসের বেতন, কোচিং ফি, স্কুলের উন্নয়ন ফি ইত্যাদির কথা বলে অতিরিক্ত টাকা আদায় করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া অকৃতকার্য ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা নেয়া হয়েছে।

আমাদের মানবকণ্ঠের বিভিন্ন জেলা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো কল্যাণ তহবিল, ক্রীড়া, মিলাদ মাহফিল, জরিমানাসহ খরচের নানা খাতে এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছে। মাদারীপুর পৌরসভার চরমুগরিয়া বালিকা উচ্চবিদ্যালয় ও মার্চেন্টস বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩ হাজার ১০০ টাকা এবং মিঠাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ২ হাজার ৫০০ টাকা করে নেয়া হচ্ছে। তাঁতাবাড়ি ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ফরম পূরণে ৪ হাজার থেকে ৪ হাজার ৬শ’ টাকা নেয়া হচ্ছে। গৌরনদীর কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই এ নির্দেশনা মানছে না। উপজেলার খাঞ্জাপুর পাঙ্গাশিয়া মাধ্যমিক স্কুলে ফরম পূরণে সাড়ে তিন হাজার টাকা দিতে হচ্ছে। উপজেলার নলচিড়া উচ্চ বিদ্যালয়, সরিকল উচ্চবিদ্যালয়, চন্দ্রহার উচ্চ বিদ্যালয়, গৌরনদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মাহিলাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বার্থী উচ্চ বিদ্যালয়সহ অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে খোঁজ নিয়ে একই চিত্র পাওয়া গেছে। পাবনা জেলার সুজানগরে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এসএসসি ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায় করা হচ্ছে। এতে অভিভাবকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।

উল্লেখ্য, গত বছর যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ফরম পূরণে শিক্ষা বোর্ড নির্ধারিত ফির চেয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায় করেছিল এক আদেশে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এরপর গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি অতিরিক্ত ফি আদায়কারী স্কুল ও মাদরাসাকে পরবর্তী সাত কর্মদিবসের মধ্যে তা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন শিক্ষামন্ত্রী। ওইসময় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের জানান, সারাদেশে ৩ হাজার ৩৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা নেয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছিল। এর মধ্যে ৮০৩টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অতিরিক্ত অর্থ ফেরত দিয়েছে। ৯৯৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, তারা বাড়তি টাকা নেয়নি। এসব তথ্য এখন পরীক্ষা করা হচ্ছে।

মানবকণ্ঠ/বিএএফ