এবার জাদুকর জয়া-ফারিয়া!

অনম বিশ্বাস পরিচালিত ‘দেবী’ মুক্তি পেয়েছে প্রায় ২০ দিন হলো। তবে এখনো প্রেক্ষাগৃহে চলছে দেবী-জ্বর। অবশ্য বছরের সবচাইতে ব্যবসা সফল এই চলচ্চিত্রটি এখন শুধু দেশে নয়, দেশের বাইরেও দর্শকের মাঝে উন্মাদনা সৃষ্টি করেছে। আর এই জ্বর খানিকটা বাড়িয়ে তুলতে নতুন আরেক প্রচারণার কৌশল নিয়ে হাজির হয়েছেন ‘সি তে সিনেমা’র কর্ণধার, প্রযোজক ও অভিনেত্রী জয়া আহসান।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে দর্শনার্থীদের সামনে হঠাৎ করেই হাজির হন জয়া আহসান ও শবনম ফারিয়া। একটা সময় দর্শকের অনুরোধে তাদেরকে অভিনব কায়দায় যাদুও পরিবেশন করেন ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের ‘রানু’ জয়া আহসান ও ফারিয়স।

এই যাদু পর্বটি পরিচালনা করেছেন দেশের খ্যাতনামা যাদুশিল্পী শাহীন শাহ। রুম্মান রশীদ খান-এর সঞ্চালনায় এই যাদু প্রদর্শনী’টি ছিল উপস্থিত দর্শনার্থীদের জন্য বিশেষ চমক। জয়া আহসান এর আগে টেলিভিশন চ্যানেলে সংবাদ পরিবেশন করে এবং প্রেক্ষাগৃহে ফারিয়ার সাথে টিকেট কেটে প্রচারণায় নতুন নজীর স্থাপন করেন। এবার জন সম্মুখে যাদু দেখিয়ে প্রচার-প্রচারণার কৌশলগত দিক দিয়ে যেন নিজেদেরই ছাড়িয়ে গেলেন তারা।

বিশেষ করে একটি চলচ্চিত্র মুক্তির ২০ দিনের মাথায় কোনো চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের সাধারণত প্রচার-প্রচারণায় দেখা যায়না। সে ক্ষেত্রেও জয়া আহসান, ফারিয়া ও তার টীম ব্যতিক্রম। যাদু প্রদশর্নী বিষয়ে জয়া আহসান বলেন, আমরা দেবী চলচ্চিত্রে শুনেছি প্রকৃতি বড়ই অদ্ভুত, কিছু সত্য সে পরম মমতায় লুকিয়ে রাখে।

আমরা সেই লুকিয়ে থাকা অলৌকিকের ব্যাখা সাধারণ যুক্তি দিয়ে বার বার বোঝার চেষ্টা করি। বুঝতে না পারলে কাকতালীয় ঘটনা বলে চালিয়ে দেই। এই ভাবনা থেকেই যাদু করবার ঝুঁকি নিয়েছি। এতদিন দর্শক হিসেবে যাদু নিয়ে অনেক প্রশ্ন, অনেক রহস্যের গন্ধ খুঁজে বেরিয়েছি। এবার নিজে যাদু দেখাতে গিয়ে বুঝলাম, সত্যিই অনেক অলৌকিক ঘটনার যুক্তি দিয়ে ব্যাখ্যা করা যায়না। আর এটিই বোধ হয় প্রকৃতির সবচেয়ে বড় সৌন্দর্য। রিভাইভের সার্বিক সহযোগিতায় এই যাদু প্রদশর্নীর ব্রডকাস্ট পার্টনার মাছরাঙা টেলিভিশন।

মানবকণ্ঠ/এসএ

Leave a Reply

Your email address will not be published.