এবারের আইপিএলে প্রাইজমানি হিসেবে যা থাকছে

ক্রিকেটবিশ্বের অন্যতম আসর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এই টুর্নামেন্টকে বলা হয় ক্রিকেটের অর্থের ঝনঝনানির আসর। আর এ কারণেই বিশ্বের ক্রিকেট তারকাদের স্বপ্নের আসরের নাম আইপিএল।

দিন শেষে আজ শনিবার রাতে পর্দা উঠছে বিশ্ব ক্রিকেটের সব চাইতে বড় তারকা সম্বলিত মিলনমেলা আইপিএল এর দ্বাদশ আসরের। চেন্নাইয়ে শুরু হচ্ছে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক লিগ আইপিএলের এবারের আসর।

উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। চেন্নাইয়ের ঘরের মাঠ এমএ চিদম্বরম স্টেডিয়ামে রাত সাড়ে ৮টায় মাঠে গড়াবে দুই দলের লড়াই।

ইতোমধ্যে টুর্নামেন্টের প্রাইজমানি প্রকাশ্যে এসেছে। বরবাবরের মতো এবারও অর্থের ঝনঝনানিতে পিছিয়ে নেই। চ্যাম্পিয়ন দল হাতিয়ে নেবে ১৫ কোটি ভারতীয় রুপি। আর রানার্সআপ দল পাবে ১০ কোটি রুপি। এছাড়া প্রতি ম্যাচে ও টুর্নামেন্টজুড়ে থাকছে নানা অর্থ পুরস্কার। চলুন একনজরে দেখে নেয়া যাক এবারের আইপিএলের সব প্রাইজমানি-

প্রতি ম্যাচের পুরস্কার

১. অন্য আসরের মতো এবারও রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে খেলা হবে। লিগ পর্যায়ের প্রতি ম্যাচে ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত খেলোয়াড় পাবেন ১ লাখ রুপি।

২. প্লে অফ রাউন্ডে ম্যাচসেরার পুরস্কারের পরিমাণ বাড়বে। সেরা চারের প্রতি খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত খেলোয়াড় পাবেন ৫ লাখ রুপি।

৩. প্রতি ম্যাচের সেরা ক্যাচের জন্য থাকছে ১ লাখ রুপি।

৪. প্রতি ম্যাচে সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকানো ব্যাটসম্যান পাবেন ১ লাখ রুপি। দুইজন ব্যাটসম্যান সমান ছক্কা মারলে সবচেয়ে বড় ছক্কা মারা ব্যাটার পাবেন এ পুরস্কার।

৫. টুর্নামেন্টজুড়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের মাথায় থাকবে কমলা ক্যাপ।

৬. পুরো টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী পরবেন বেগুনি ক্যাপ।

মৌসুম পুরস্কার

১. চলতি মৌসুমে সাত কিংবা ততোধিক ম্যাচ অনুষ্ঠেয় মাঠের জন্য বরাদ্দ ৫০ লাখ রুপি। এর কম ম্যাচ অনুষ্ঠেয় মাঠের জন্য বরাদ্দ ২৫ লাখ রুপি।

২. পুরো আসরে সেরা ক্যাচ ধরা ফিল্ডার পাবেন ১০ লাখ রুপি।

৩. গোটা আসরে সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকানো ব্যাটসম্যান পাবেন ১০ লাখ রুপি। এক্ষেত্রেও টাই হলে বিবেচনা করা হবে বড় ছক্কা।

৪. পুরো টুর্নামেন্টে দ্রুততম ফিফটি করা ব্যাটসম্যান পাবেন ১০ লাখ রুপি। এক্ষেত্রে টাই হলে দেখা হবে আসরের স্ট্রাইক রেট।

৫. ম্যাচে প্রভাবের ওপর ভিত্তি করে নির্বাচিত হবেন টুর্নামেন্টের সেরা হ্যান্ডস্যাম খেলোয়াড়। সেজন্য থাকছে ১০ লাখ রুপি।

৬. পুরো আসরের সবচেয়ে অভিনব, সৃষ্টিশীল ও দর্শনীয় শট খেলা ব্যাটসম্যান পাবেন ১০ লাখ রুপি।

৭. আসরের উদীয়মান খেলোয়াড় পাবেন ১০ লাখ রুপি।

৮. আসরের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়ের (মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার-এমভিপি) পয়েন্ট পাওয়া ক্রিকেটার পাবেন ১০ লাখ রুপি।

দলীয় পুরস্কার

১. চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ১৫ কোটি রুপির চেক

২. রানার্সআপ দল পাবে ১০ কোটি রুপির চেক

৩. প্লে-অফের অন্য দুই দল পাবে ৫ কোটি রুপির চেক

প্রসঙ্গত, ক্রিকেটবিশ্বে ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটের প্রবর্তক আইপিএল ২০০৮ সালে শুরু হয়। প্রথম আসরেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে টুর্নামেন্টটি। এরপর একে একে সব দেশ ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট প্রবর্তন করলেও এখনও সবচাইতে বড় ক্রিকেট আসর আইপিএল।