এতটা ভালোবাসা পাব সত্যি ভাবিনি

দীর্ঘ ২২ বছর পর গত ৬ সেপ্টেম্বর দেশে এসেছিলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের আশির দশকের জনপ্রিয় নায়িকা অঞ্জু ঘোষ। গত রোববার সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। এতটা বছর পর কেন হঠাৎ দেশে এলেন তিনি আর নতুন করে কি বাংলা চলচ্চিত্রে অবদান রাখতে চান এমনই নানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজেছেন— মোহাই মেনুল নিয়ন

দীর্ঘ ২২ বছর পর দেশে ফিরে কেমন লাগছে?
অনেকগুলো বছর পর আবার নিজের দেশে আসতে পেরেছি। অনুভূতিটা সত্যি অনেক ভালো। অনেক খুশি আমি। যদিও আসতে গিয়ে নানা রকম বাধার সম্মুখীন হয়েছি আমি। অনেক কটু কথাও শুনতে হয়েছে আমাকে। তবে সেসব বিষয়ে আমি এখন কথা বলতে চাই না। সব ভুলে গেছি আপনাদের সবার ভালোবাসা পেয়ে। অনেক দিন পর দেশে এসে আপনাদের কাছ থেকে এতটা ভালোবাসা পাব সত্যি ভাবতে পারিনি আমি। আপনারা আমার আপনজন। আপনাদের ভালোবাসায় মুগ্ধ আমি।

এতগুলো বছর পর হঠাৎ করেই দেশে আসার পেছনে কোনো উল্লেখযোগ্য কারণ আছে কি?
মাটির টান। শুধুমাত্র মাটির টানেই আমি আবার আমার দেশে ফেরত এসেছি। আর কোনো কারণ নেই। তবে খুব ইচ্ছে ছিল আমার মাকে সঙ্গে নিয়ে দেশে ফিরব। কিন্তু খুব দ্রুত তিনি মারা যাওয়ায় সেটা সম্ভব হলো না।

কারো প্রতি অভিমান করেই কি দেশ ছেড়েছিলেন?
না। কারো প্রতি অভিমান করে আমি দেশ ছাড়িনি। আমার কারো প্রতি কোনো অভিমান নেই। আমি আসলে মাত্র দুই দিনের জন্য মায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম আর গিয়েই ফেঁসে গিয়েছি।

তখনকার এবং বর্তমান সময়ের এফডিসির মাঝে কেমন পার্থক্য দেখছেন?
‘বাংলাদেশে আমি খুব অল্প সময়ের জন্য এসেছি। তবে এসে আমি অনেক দুঃখিত হয়েছি বলতে পারেন। আমাদের সময় প্রচুর ছবি নির্মাণ হতো এখানে। অনেক ঝলমলে আলো ছিল। কিন্তু এখন সেসব কোথায়? সব জায়গায় কেমন যেন একটা সুনসান নীরবতা বিরাজ করছে। এটা আমাকে সত্যি খুব ব্যথিত করেছে। তবে শুধু শুটিং বা কাজ নয়, বাংলা চলচ্চিত্রের দর্শকও অনেক কমে গেছে। যতটুকু বুঝতে পারছি এখানকার মানুষগুলো প্রচুর ভারতীয় সিরিয়াল দেখছে। তাই আমাদের সবার আগে চলচ্চিত্র শিল্পের দর্শক ফেরাতে হবে। দর্শকদের হলমুখী করতে হবে। এই শিল্প বাঁচলেই আমরা বাঁচব, শিল্পীরা বাঁচবে।

শোনা যাচ্ছিল বাংলাদেশে ছবি প্রযোজনা করবেন আপনি। এটা কি সত্যি?
বাংলাদেশে তো আসাই আমার জন্য অনেক সমস্যা। এবার আসতেই আমাকে অনেকগুলো বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছে। যে কথা একটু আগেও বলছিলাম। তবে আমি বাংলাদেশে বারবার আসতে চাই।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published.