একরাম হত্যা মামলার রায় ১৩ মার্চ

একরাম

ফেনীর আলোচিত ফুলগাজী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা একরাম হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামী ১৩ মার্চ। মঙ্গলবার দুপুরে ফেনীর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আমিনুল হক আসামিদের পক্ষে যুক্তিতর্ক শেষে এ তারিখ ঘোষণা করেছেন। একইসঙ্গে মামলার সব আসামির জামিন বাতিল করেন বিচারক।

ফেনী জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) হাফেজ আহাম্মদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

আদালত সূত্র জানায়, এ মামলার এজাহারভুক্ত ৫৬ আসামির মধ্যে বর্তমানে ১৪ জন কারাগারে, ২৩ জন জামিনে ও ১৮ জন পলাতক রয়েছেন। এছাড়া একজন র‌্যাবের ক্রসফায়ারে মারা যান ।

ফেনী জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) হাফেজ আহাম্মদ বলেন, এ মামলায় ৫৯ জন সাক্ষীর মধ্যে বাদী ও তদন্ত কর্মকর্তাসহ এযাবৎ ৫০ জন আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত ৫৬ জন আসামির মধ্যে বর্তমানে ১৪ জন কারাগারে, ২৩ জন জামিনে ও ১৮ জন পলাতক রয়েছেন। এছাড়া জামিনে থাকা মো. সোহেল ওরফে রুটি সোহেল নামে একজন আসামি র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মারা গেছেন। পলাতকদের মধ্যে ৬ জন জামিনে গিয়ে পলাতক এবং ১২ জন একরাম হত্যা মামলা দায়েরের পর থেকেই পলাতক।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ২০ মে ফেনী শহরের একাডেমি এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান একরামুল হকের গাড়ির গতিরোধ করে তাকে কুপিয়ে, গুলি করে ও গাড়িসহ পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় চেয়ারম্যান একরামুল হকের ভাই রেজাউল হক জসিম বাদী হয়ে বিএনপি নেতা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ওরফে মিনার চৌধুরীসহ অজ্ঞাত ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে ফেনী সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মানবকণ্ঠ/এসএফইউএ/এসএস