একতরফা নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করেছে: ফখরুল

একতরফা নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিএনপির গুলশান কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের এক বৈঠক শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি অলি আহমদ।

এখানে সরকারের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটেছে, এখানে জনগণের আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটেনি উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই তফসিল ঘোষণার ব্যাপারে আমাদের বক্তব্য একেবারে পরিষ্কার, জনগণের আশার পরিপন্থি কোনো নির্বাচন অনুষ্ঠান এদেশের জনগণ গ্রহণ করব না।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনে গিয়ে তফসিল পিছিয়ে দেয়ার অনুরোধ করেছিলেন বলে জানিয়ে ফখরুল বলেন, সেটা পিছিয়ে দেয়া হয়নি। জনগণের যে আশা-আকাঙ্ক্ষা তার প্রতিফলন না ঘটিয়ে একতরফাভাবে এটা করা হয়েছে।

এর আগে সন্ধ্যা ৭টায় আগামী ২৩ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণের দিন চূড়ান্ত করে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা। সিইসির এই ভাষণ বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়া যাবে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত, তা বাছাই হবে ২২ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর। তার ২৪ দিন পর হবে ভোটগ্রহণ। ৩০০টি আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচনে এবার ভোট দেবেন ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮০ ভোটার।

প্রসঙ্গত, সংবিধান অনুযায়ী আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। গত ৩১ অক্টোবর থেকে নির্বাচনকালীন সময়ের ক্ষণ-গণনা শুরু হয়। তবে ডিসেম্বরের মধ্যেই ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করতে বদ্ধপরিকর ছিল নির্বাচন কমিশন। এজন্য ১ নভেম্বর রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি জানায় ইসি। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

মানবকণ্ঠ/এএম

Leave a Reply

Your email address will not be published.