‘ইয়ং লিডার্স বিল্ড-২০১৯’র উদ্বোধন

‘ইয়ং লিডার্স বিল্ড-২০১৯’র উদ্বোধন

আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী দিবস উপলক্ষে নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করাকে অনুপ্রাণিত করার জন্য নানা আয়োজন করা হয়ে থাকে। এই উপলক্ষে হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি মেটলাইফ ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে, এশিয়া প্যাসিফিকের সবচেয়ে বড় গৃহায়ণ আয়োজন ‘ইয়ং লিডার্স বিল্ড ২০১৯’ উদ্বোধন করে। সকলের জন্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে বাসযোগ্য ঘর তৈরির কাজে বিগত বছরের ক্যাম্পেইনগুলোর সমর্থনকারীদের সঙ্গে এবছরও প্রতিটি অঞ্চল থেকে তরুণদল অংশগ্রহণ করবে বলে আশা করা যায়।

মেটলাইফ ফাউন্ডেশন ঐতিহ্যগতভাবে সুবিধা বঞ্চিত মানুষের সুন্দর জীবন এবং তাদের জন্য সুযোগ তৈরির লক্ষ্যে মেটলাইফের স্বেচ্ছাসেবীদেরকে কাজ করার সুযোগ দিয়ে আসছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এআইইউবি)’র খিলক্ষেতের ক্যাম্পাসে টেকসই ও সহনশীল কমিউনিটি গড়ে তুলতে গৃহায়ণের অবদান সম্পর্কিত এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। নানা বিদ্যালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়, স্বেচ্ছাসেবী, সাংবাদিক ছাড়াও মেটলাইফ ও হ্যাবিট্যাট বাংলাদেশের প্রায় ৫০ জন অংশগ্রহণ করে এই আয়োজনে। উল্লেখ্য, এআইইউবি-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট অব একাডেমিকস ড. চার্লস সি. ভিলানুভা উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এই আয়োজনে সংক্ষিপ্ত উপস্থাপনার পর ছিল হ্যাবিট্যাট ইয়ং লিডার্স বিল্ড (এইচওয়াইএলবি)-এর উপরে একটি প্রেজেন্টেশন। এআইইউবি, মেটলাইফ বাংলাদেশ এবং হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি বাংলাদেশের উপস্থিত বিশেষ অতিথিরা সংক্ষিপ্ত বক্তব্যের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী স্বেচ্ছাসেবীরা মানুষের জীবনে যে ইতিবাচক পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারে সে বিষয়ে আলোকপাত করেন। বিগত বছরের স্বেচ্ছাসেবী এবং গৃহের মালিক পরিবারের সদস্যেরও অনুষ্ঠানে তাদের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে বলেন।

মেটলাইফ ফাউন্ডেশন সুবিধা বঞ্চিতদের জীবনমান উন্নয়নে এবং তাদের জন্য সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে নানা উদ্যোগ এবং সেসব উদ্যোগে মেটলাইফের কর্মীদের নিয়োজিত হওয়ার ব্যাপারে উৎসাহিত করে থাকে। মেটলাইফ ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে হ্যাবিট্যাট বিশ্বব্যাপী নিম্ন আয়ের পরিবারদেরকে নিরাপদ ও ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে গৃহায়নের মাধ্যমে সাহায্য করে আসছে। ২০১৭ সালে মেটলাইফের স্বেচ্ছাসেবীরা ১৪টি দেশে ৯ হাজার ঘন্ণ্টারও বেশি স্বেচ্ছাশ্রম দিয়েছে এবং মেটলাইফ ফাউন্ডেশন প্রায় ৭ লাখ মার্কিন ডলার অর্থায়ন করেছে।

সম্প্রতি, মেটলাইফ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ৪টি ঘর তৈরির অর্থ অনুমোদন করেছে। মেটলাইফের কর্মীরা এই নির্মাণে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করবে। তাছাড়া মেটলাইফ ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে ৪০ জন তরুণ স্বেচ্ছাসেবক ঘর নির্মাণের কাজে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করবে।

হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি সবসময়ই স্বেচ্ছাসেবীদের নেটওয়ার্ক সম্পর্কে অগ্রগামী ভূমিকা পালন করে এবং গৃহায়ণের দারিদ্রতা দূরীকরণে তরুণদের নিয়োজিত করে। হ্যাবিট তার স্বেচ্ছাসেবী, সমর্থক, দাতা এবং অংশীদারদেরকে দরিদ্র পরিবারদের শক্ত, সুস্থিত এবং আত্মনির্ভরশীল ভবিষ্যৎ গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করে।

বার্ষিক হ্যাবিট্যাট ইয়ং লিডার্স বিল্ড ২০১৯, এপ্রিলে এই অঞ্চলে তরুণদের নিয়মিত অংশগ্রহণের মাধ্যমে শুরু হতে যাচ্ছে। গৃহ নির্মাণ, বিদ্যালয়ের পরিচ্ছন্নতা, স্বাস্থ্যবিধি এবং স্বাস্থসম্মত ব্যবস্থা সম্পর্কিত শিক্ষা, অনুদান সংগ্রহের আয়োজন এবং সামাজিক মাধ্যমে বাসযোগ্য গৃহের স্বপক্ষে নানা উদ্যোগ এই আয়োজনের অন্তর্ভুক্ত।

২০১২ থেকে ১২.৫ মিলিয়নেরও অধিক হ্যাবিট্যাট ইয়ং লিডার্স বিল্ড সমর্থকরা গৃহ নির্মাণ এবং ২৯ হাজারেরও অধিক পরিবারকে সহায়তার জন্য ৭.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান জোগাড় করেছে যেন তারা দৃঢ়, স্থিতিশীল এবং আত্মনির্ভরশীলতার মাধ্যমে উন্নত জীবন যাপন করতে পারে। ২০১৮ সালের ক্যাম্পেইনে ১৭ টি দেশ এবং এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনের একটি বিশেষ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ রিজিওন থেকে রেকর্ড সংখ্যক ৪.৩ মিলিয়ন সমর্থককে নিয়োজিত করে। ২০১৮/১৯ সালের হ্যাবিট্যাট ইয়ং লিডার্স বিল্ডের ১.৫ মিনিটের ভিডিওটি দেখতে পারেন হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটির এশিয়া প্যাসিফিক ইউটিউব চ্যানেলে।

ফেসবুকে bit.ly/HabitatYLB -তে হ্যাবিট্যাট ইয়ং লিডার্স বিল্ড কমিউনিটিতে যোগ দিন। সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করুন #HabitatYLB ব্যবহার করে এবং ইন্সটাগ্রামে ফলো করুন @HabitatYLB।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.