ইভিএমে জনমনে অনেক সন্দেহ রয়েছে: এরশাদ

ইভিএমে জনমনে অনেক সন্দেহ রয়েছে: এরশাদ

ইভিএমের ব্যাপারে জনমনে অনেক সন্দেহ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেন, এই ভোটিং পদ্ধতি চালুর আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা প্রয়োজন। সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে তা না করে ইভিএম জনগণের উপর চাপিয়ে দেয়া ঠিক হবে না।

আওয়ামী লীগ ইভিএমের পক্ষে অবস্থান নিলেও তাদের রাজনৈতিক মিত্র এরশাদ শনিবার এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে যন্ত্রে ভোটগ্রহণের বিষয়ে এমন মন্তব্য করলেন।

সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে নির্বাচন কমিশন আইন সংশোধনের সিদ্ধান্ত নিলেও একাদশ সংসদ নির্বাচনে তার সফলতা নিয়ে সন্দিহান এরশাদ বলেন, আমাদের মানুষ তো টিপসই দিতে পারে না, ইভিএমে টিপ দেবে কীভাবে? এতগুলো আসনে যদি একসঙ্গে ইভিএম হয়, তবে তার সফলতা নিয়ে আমরা নিশ্চিত নই।

রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ের অনুষ্ঠানে ইভিএম নিয়ে এই মতামত জানিয়ে এরশাদ বলেন, আগামী বুধবার জাতীয় পার্টির এক বর্ধিত সভায় বিষয়টি নিয়ে দলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

কামাল হোসেনের গণফোরামকে সঙ্গে নিয়ে এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর যুক্তফ্রন্টের জাতীয় ঐক্যের উদ্যোগকে কীভাবে দেখছেন- সাংবাদিকদের এ প্রশ্নে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, আমি আমার জোট নিয়ে আছি।

এরশাদ জানান, বিএনপি নির্বাচনে না গেলে তারা আলাদাভাবে নির্বাচনে অংশ নেবেন। যদি তারা আসে, তবে অন্যভাবে নির্বাচন করব। চেষ্টা করলে আমরা ক্ষমতায় যেতে পারব। সে অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

শনিবারের অনুষ্ঠানে এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন কুড়িগ্রাম সদরের আওয়ামী লীগ নেতা পনির উদ্দিন আহমেদ। আসন্ন সংসদ নির্বাচনে তিনি কুড়িগ্রাম-২ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মো. হাফিজ উদ্দিন, মসিউর রহমান রাঙা, সুনীল শুভ রায়, খালেদ আখতারসহ চেয়ারম্যানের উপদেষ্টারা।

মানবকণ্ঠ/এসএস