আমরা চাই না বিএনপি ভেঙে যাক: কাদের

ওবায়দুল কাদের

বিএনপি একটি বড় রাজনৈতিক দল, আমরা চাই না দলটি ভেঙে যাক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, তবে বিএনপি যদি ভেঙে যায় তার জন্য তারা নিজেরাই দায়ী থাকবে। আর বিএনপির সাংগঠনিক অভ্যন্তরীণ সংকট ঘনীভূত হওয়ার জন্য তারেক রহমানই যথেষ্ট।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল র‌্যাডিসনের সামনে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমান আদালতের কার্যক্রম পরিদর্শনকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

কাদের বলেন, আমরা বিএনপির অভ্যন্তরীণ সাংগঠনিক সংকট ঘনীভূত করবো না, তাদের অভ্যন্তরীণ সংকট ঘনীভূত হওয়ার জন্য তারেক রহমানই যথেষ্ট।

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কারাবাস দীর্ঘায়িত হবে কি-না তা আদালত সে সিদ্ধান্ত নেবে। তার নামে আরো বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। তবে এ ব্যাপারে সরকার আগেও যেমন কোন হস্তক্ষেপ করেনি, ভবিষ্যতেও করবে না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপি কখনো বলে তারা যে কোনো পরিস্থিতিতে নির্বাচনে আসবে, আবার কখনো বলে খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে আসবে না। আগে তাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা কি চায়। বেগম খালেদা জিয়া একটি দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাগারে রয়েছেন। তারা রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে বা আপিল বিভাগে যেতে পারেন। আদালত জামিন মঞ্জুর করলেই তিনি বাইরে থাকতে পারেন। সেটা আদালতের সিদ্ধান্ত।

সাংবাদিকদের করা এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নেতারা ভেবেছিল বেগম জিয়া কারাগারে গেলে লাখ লাখ লোক রাস্তায় নেমে আসবে। কিন্ত বাস্তবে শত শত লোকও রাস্তায় নেমে আসেন নি। আন্দোলন করতে হলে জনগনের সমর্থন থাকতে হয়। যা বিএনপির প্রতি নেই।

তিনি বলেন, জনগণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থাশীল। তারা বঙ্গবন্ধু কন্যার দৃঢ় নেতৃত্ব, সততা, দেশ পরিচালনার দক্ষতার ওপর পুরোপুরি আস্থাশীল।

বিএনপির ভাষণ আর কথা শুনে দেশের মানুষ রাস্তায় নামবে না উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, জনগণ বিএনপিকে মনে রাখতে পারে এমন কোনো কাজ করতে পারে নি।

এ সময় বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমানসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.