আপিলেও আটকে গেলো বিএনপির ৭ জনের প্রার্থিতা

আপিলেও আটকে গেলো বিএনপির ৭ জনের প্রার্থিতা

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থিতা বাতিল হওয়া হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালতে আপিল আবেদন জানিয়েও প্রার্থিতা ফিরে পেলেন না বিএনপির ৭ প্রার্থী। এ ছাড়া স্বতন্ত্র আসনের একজন প্রার্থীরও প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে।

হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে প্রার্থীদের করা আপিল আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার চেম্বার বিচারপতি নুরুজ্জামান ননীর আদালত এ আদেশ দেন। এর ফলে এই আটজন প্রার্থী আর নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক।

আদালতে আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। অন্যদিকে, নির্বাচন কমিশনের (ইসি) পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক।

মনোনয়ন পেলেও আদালতে প্রার্থিতা হারানো প্রার্থীরা হলেন— জামালপুর-৪ আসনের ফরিদুল কবির তালুকদার, জয়পুরহাট-১ আসনের মো. ফজলুর রহমান, ঝিনাইদহ-২ আসনের এম এ আব্দুল মজিদ, রাজশাহী-৬ আসনের আবু সাঈদ চাঁদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ আসনের ইঞ্জিনিয়ার মোসলেম উদ্দিন, ঢাকা-১ আসনের প্রার্থী খন্দকার আবু আশফাক এবং ঢাকা-২০ আসনের তমিজ উদ্দিন।

এ ছাড়া ময়মনসিংহ-৮ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদ হাসান সুমনের মনোনয়নপত্র বাতিলের আদেশ বহাল রেখেছেন চেম্বার আদালত।

এর আগে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিএনপির বেশ কয়েকজন প্রার্থীর প্রার্থিতা হাইকোর্টে আটকে যায়। এসব প্রার্থীর সবাই উপজেলা চেয়ারম্যান পদে থেকে নির্বাচন করায় হাইকোর্ট তাদের প্রার্থিতা স্থগিত করে রুল জারি করেছিলেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৩ ডিসেম্বর এই প্রার্থীরা হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে পৃথক পৃথক আবেদন জানান। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে চেম্বার আদালত তাদের প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন।

মানবকণ্ঠ/এসএস