আপাতত সিটিং সার্ভিস চলবে

রাজধানীতে সিটিং সার্ভিস বাস চলবে, তবে ভাড়া নিতে হবে সরকার নির্ধারিত হারে। এ সিদ্ধান্ত আপাতত আগামী ১৫ দিনের জন্য। এ সময়ের পর পরিবহন মালিক, যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে আলোচনা করে সিটিং সার্ভিসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

বুধবার রাজধানীতে বিআরটিএর এলেনবাড়ি কার্যালয়ে পরিবহন মালিক ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান মো. মশিয়ার রহমান। বৈঠক শেষে তিনি এ কথা বলেন।

বিআরটিএ চেয়ারম্যান বলেন, সিটিং সার্ভিস বন্ধের সিদ্ধান্ত ১৫ দিনের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এর মধ্যে অংশীজনদের নিয়ে বৈঠক করা হবে। এই সার্ভিস যদি যাত্রীরা চায়, তাহলে সেটা আইনি কাঠামোর মধ্যে এনে চালু করা যেতে পারে। তবে কোনো অবস্থাতেই ভাড়ার ব্যাপারে আপস করা হবে না। সরকারি হিসেবে কিলোমিটার প্রতি যা ভাড়া আছে, তা নিতে হবে।

সিটিং সার্ভিস বন্ধ হওয়ার পর যারা বাস নামাননি সে বিষয়ে মশিয়ার রহমান বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের কারণে যারা বাস নামাননি, তাদের তালিকা করা হয়েছে। প্রথমে তাদের কারণ দর্শাতে হবে, তারপর শাস্তি দেয়া হবে।

গত রোববার সিটিং সার্ভিস বাস চালানো বন্ধের ঘোষণা দেয়ার পর বিআরটিএর ভ্রাম্যমাণ আদালত এর বিরুদ্ধে অভিযানে নামে। এতে অনেক বাস মালিক সড়কে গাড়ি না নামালে দেখা দেয় পরিবহন সঙ্কট। ফলে দুর্ভোগে পড়ে যাত্রীরা। এছাড়া ভাড়া নিয়ে যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকদের বচসাও হয়। যা গত তিন দিন ধরে চলে।

মানবকণ্ঠ/জেডএইচ