আটকের পর ছেড়ে দেয়া হলো জাল ভোট প্রদানকারীদের

ঝালকাঠি সদর উপজেলার ভাটারাকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন শেল্টার কেন্দ্রে জাল ভোট প্রদানের অভিযোগে আটক দুই যুবককে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। এর আগে রোববার সকাল ১০টার দিকে তাদের আটক করা হয়। এছাড়া একই কেন্দ্রে ঢুকে ভোটারদের প্রভাবিত করা অভিযোগে উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহানের বিরুদ্ধে।

কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার ও সরকারি মহিলা কলেজের প্রভাষক মো. জাহিদুল ইসলাম জানান, রোববার সকাল থেকে ভালোভাবেই ভোট গ্রহণ শুরু হয়। ১০টার পরে এক ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী এসে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এজেন্ট বের করে দিয়ে প্রকাশ্যে জাল ভোট দেয়ার চেষ্টা করে। কিছুক্ষণের মধ্যে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা খানম’র নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত এবং স্ট্রাইকিং ফোর্স চলে আসলে প্রভাব বিস্তারে চেষ্টাকারীরা চলে যায়। প্রশাসনের টিম চলে যাবার পরে স্থানীয় কিছু নেতাকর্মীরা জাল ভোট দিতে চেষ্টা করলে মো. শাওন খানসহ ২ জনকে আটক করে ঘণ্টাখানেক পরে আবার ছেড়ে দেয়া হয়। ভোটগ্রহণ শেষে ফেরার সময় নিরাপত্তাহীনতার বিষয়টি সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. আতাহার মিয়াকে মুঠোফোনে অবহিত করলে তিনি ফোর্স পাঠিয়ে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ