আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় উদযাপনে আজ বিকেলে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের হ্যাটট্রিক বিজয়কে স্মরণীয় করে রাখতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকার আদলে তৈরি করা হয়েছে বিশাল মঞ্চ। সমাবেশ মাঠে ছোট-বড় ৫০-এর অধিক নৌকা ও বৈঠাসহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গবন্ধু কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ছবি সম্বলিত ফেস্টুনে সুসজ্জিত করা হয়েছে। বিজয় সমাবেশটি জনসমুদে রূপ দিতে রাজধানীর পার্শ্ববর্তী জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ দলের সহযোগী সংগঠনসহ ঢাকা মহানগরের দলীয় নেতাকর্মীরা ব্যাপক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে বলা হয়েছে, আজ দুপুর আড়াইটায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিজয় সমাবেশে যোগদান করবেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিজয় মহাসমাবেশকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী রাজধানীজুড়ে কঠোর নিরাপত্তাবলয় ও সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। এ লক্ষ্যে ইতিমধ্যে চলাচলের রুট নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। বিজয় সমাবেশকে বিজয় আনন্দে রূপ দিতে বরেণ্য শিল্পীরা বিভিন্ন গান পরিবেশন করবেন। এ লক্ষ্যে মূল বিজয় মঞ্চের সামনে পৃথকভাবে আরেকটি মঞ্চ করা হয়েছে। মূল মঞ্চের ব্যাকগ্রাউন্ডে একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচনী ইশতেহারের মলাটের রঙের আদলে সজ্জিত করা হয়েছে।

তবে এবার বেলা ১১টার পর থেকে বিজয় সমাবেশে নেতাকর্মীরা প্রবেশ করতে শুরু করবে। দুপুর ১২টার পর সংগীত শিল্পীরা বিভিন্ন গান পরিবেশন শুরু করবেন। দুপুর আড়াইটার পর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সমাবেশস্থলে আসবেন। আওয়ামী লীগ সভাপতির আগমনের সময় শিল্পী মমতাজ গান পরিবেশন করবেন এবং মঞ্চে আসন গ্রহণের পর জিতবে এবার নৌকা’ গানের শিল্পীরা সমবেত কণ্ঠে গান পরিবেশন করবেন। বিজয় সমাবেশ গান পরিবেশন করবেন শিল্পী মমতাজ বেগম, আঁখী আলমগীর, রফিকুল আলম, ফাহমিদা নবী, কল্পনা মজুমদার, জলের গান এবং ‘জিতবে এবার নৌকা’ গানের শিল্পীরা। এরপর দলের নেতারা বক্তব্য রাখবেন। মূল অনুষ্ঠান পরিচালনা করবে দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন। সংগীত শিল্পীদের পরিবেশনা শেষে নেতাদের বক্তব্য শেষে জনগণসহ দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বিজয় বার্তা দেবেন শেখ হাসিনা।

গতকাল সকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে বিজয় সমাবেশস্থল পরিদর্শন করেছেন আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতারা। ওবায়দুল কাদের সার্বিক কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সামনে বিজয় সমাবেশে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতাকর্মীদের উদ্দেশে গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দেবেন বলে জানান। এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, দুর্নীতি, মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের বিষয়ে নেতাকর্মীদের দূরে থাকতে আহ্বান জানাবেন দলের সভাপতি। বিশেষ করে মাদক নির্মূলে যে যুদ্ধ তাতে সবাইকে ঝাঁপিয়ে পড়ার নির্দেশনা আসবে এ সমাবেশ থেকে। ১৯ জানুয়ারি নির্বাচনে গণজোয়ারের মত সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়ে স্মরণকালের বিশাল সমাবেশে রূপ নিবে। এটা আওয়ামী লীগের ও শেখ হাসিনার সততার ফসল। সারা দেশ থেকে মানুষের ঢল নামবে।

৩০ ডিসেম্বর টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের রেকর্ড করলেও বিজয় মিছিল না করার ঘোষণা দেয় দলটি। কিন্তু বিজয় আনন্দ থেকে নেতাকর্মীদের বঞ্চিত করতে চায় না আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড। তাই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বিজয় সমাবেশে করার ঘোষণা দেয়। বিজয় সমাবেশ থেকে দেশবাসীর কৃতজ্ঞতা জানিয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক-নির্দেশনা দেবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল বলেন, ‘মাননীয় নেত্রী আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বিজয় সমাবেশে যোগ দেয়ার সময় জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মমতাজ গান পরিবেশন করবেন। এরপর নেত্রী মঞ্চে আসন গ্রহণ করলে জিতবে এবার গানের শিল্পীরা সমবেত কণ্ঠে গান পরিবেশন করবেন। এরপর দলীয় নেতাদের বক্তব্য প্রক্রিয়া শুরু হবে। 

মানবকণ্ঠ/এআর