আইস নয়, গরমে খান গরম চা

যাদের এক কাপ চা না হলে অফিসের কাজে মন বসে না, গরমে তাদের বেশ সমস্যায় পড়তে হয়। মাথা ধরা, ঝিমুনি, ক্লান্তির মতো উপসর্গ জাঁকিয়ে বসে। অনেকেই আবার গ্রীষ্ককালে গরম চা এড়িয়ে চলা ভালো বলে মনে করেন। তাই হাঁসফাঁস গরমে তারা গরম চার পরিবর্তে আইস টি খান। তাদের ধারণা আইস টি খেলে হাঁসফাঁস করা ভাব কমে। কিন্তু অবাক করার বিষয়- গরম চা খেলে ওই ভাব কমে যায় আর গরম কম লাগে। সম্প্রতি আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে এ তাক লাগানো বিষয়টি উঠে এসেছে।
বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, যখনই কেউ গরম চা খান তার দেহের তাপমাত্রা আগের থেকে অনেকটা বেড়ে যায়। ফলে অনেক বেশি মাত্রায় ঘাম বেরোতে থাকে শরীর থেকে। আর যত বেশি ঘাম হবে তত বেশি দেহ ঠাণ্ডা থাকবে। কারণ শরীর থেকে ঘাম বাষ্পীভূত হওয়ার সময় দেহের লীনতাপ গ্রহণ করে। ফলে দেহ শীতল হয়। আর ঠিক উল্টোটা হয় আইস টি খেলে। ঠাণ্ডা হওয়ায় দেহের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায় না। ফলে ঘামও হয় না। আর ঘাম না হলে প্রাকৃতিক উপায়ে দেহ শীতল থাকে না। তাই চিরকালীন অভ্যাস বজায় রাখুন। অহেতুক গরম চায়ের বদলে আইস টি খাবেন না।

মানবকণ্ঠ/আরএস