অনশন ভাঙালেন এমাজউদ্দিন

অনশন ভাঙালেন এমাজউদ্দিন

বিএনপির সিনিয়র নেতাদের পানি পান করিয়ে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রতীকী অনশন ভেঙেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর এমাজউদ্দিন আহমেদ। চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বুধবার দুই ঘণ্টার প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করে দলটি।

এ সময় এমাজউদ্দিন বলেন, ‌আজকে গণতন্ত্র ভূ-লুণ্ঠিত। একাত্তরে ত্যাগ তীতিক্ষায় গণতন্ত্র ভেসতে গেছে। এর থেকে উত্তরণের পথ আগামী জাতীয় নির্বাচন। যে নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। কারণ আমরা আইনের শাসন, মানবাধিকার, মৌলিক অধিকার, গণতন্ত্র হারিয়েছি। তা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও আগামী সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে ফিরে পেতে চাই।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বুধবার সকাল ১০টায় এ কর্মসূচি শুরু হয়ে চলে দুপুর ১২টা পর্যন্ত।

কর্মসূচিতে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া অসুস্থ, কারাগারে। তাকে সুস্থ করতে সরকারের কোনো প্রচেষ্টা নেই। বরং খালেদা জিয়াকে জেলখানায় তিলে তিলে মারার ষড়যন্ত্র করছে সরকার।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কারাগারের ভেতরে অবস্থিত আদালতে উপস্থিত হয়ে বলেছেন, আমি অসুস্থ। বারবার হাজিরা দিতে আসতে পারব না। এখানে ন্যায়বিচার হয় না। তাই যা ইচ্ছে সাজা দিন। আমি আসতে পারব না। কাজেই নেত্রীর বার্তার প্রতি সমর্থন জানিয়ে আমরাও বলছি, এই আদালতের রায় আমরা মানি না। দেশের জনগণও মানে না।

বিএনপির এই নেতা বলেন, খালেদা জিয়াকে ছাড়া বাংলাদেশে কোনো নির্বাচন হতে পারে না। এই সরকারের অধীনে নির্বাচন হয় ভোট ছাড়া। নির্বাচনে ভোট দেয় দলীয় প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার ও দলীয় এজেন্টরা। খালেদা জিয়া ছাড়া দলের যারা যারা নির্বাচনে যেতে চায় তাদেরকে সমুচিত জবাব দিতে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের মধ্যে কেউ যদি আড়ালে আবডালে নির্বাচনে যাওয়ার চেষ্টা করে তাদের সমুচিত জবাব দেয়া হবে। আমরা নতুন করে চাই না, যারা অতীতের মতো আবারও চেষ্টা করে তাদেরকে প্রতিরোধ করতে হবে।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে নাজিমউদ্দিন রোডে ঢাকার পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন খালেদা জিয়া। কারাবন্দি হওয়ার পর থেকে তার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ, প্রতিবাদ সমাবেশ, প্রতীকী অনশন, মানববন্ধন, কালো পতাকা প্রদর্শন, গণস্বাক্ষর অভিযান, বিভাগীয় শহরে জনসভা, কালোব্যাজ ধারণসহ নানা কর্মসূচি পালন করে আসছে দলটি।

মানবকণ্ঠ/এসএস